Press "Enter" to skip to content

হিন্দু ধর্মে ফিরে এলেন ৩ ব্যাক্তি! টাকার লোভে করেছিলেন ইসলাম কবুল

বাল্যকালে যদি আপনি নিজের মায়ের থেকে কোনো কারণে আলাদা হয়ে যান এবং বড়ো হয়ে কখনো মায়ের সাথে সাক্ষাত হয়, তাহলে সেই মা এর প্রতি আপনার সন্মান আসবেই। মা এর প্রতি আপনার শ্রদ্ধা আসবেই। কারণ আত্মাকে কখনো আলাদা করা যায় না, সৃষ্টি থেকে নিজেকে আলাদা রাখা যায় না। সনাতনীদের কাছে ি তাদের মা। কোনো ভাবে বিচ্ছেদ ঘটলেও মায়ের (ের) প্রতি প্রেমের উদয় ঘটবেই।

ের মুজাফরনগর থেকে তাজা সামনে আসছে। যেখানে ৩ ব্যাক্তি যারা ধৰ্ম পরিবর্তন করে কবুল করেছিল, তারা মায়ের কাছে পুনরায় ফিরে এসেছেন। অর্থাৎ হিন্দু ধর্ম করেছেন। দৈনিক জাগরণের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই তিন ব্যাক্তি যথাক্রমে ২০১৪, ২০১৬ ও ২০১৯ সালে স্বধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম কবুল করেছিলেন।

২৬ শে জুলাই, সোমবার দিন ৩ ব্যক্তিকে হিন্দু ধর্মে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। ধর্মান্তরন গ্যাং এর পাল্লায় পড়ে ৩ জন ব্যাক্তি ইসলাম কবুল করেছিল। ৩ জন ব্যক্তিকে আলাদা আলাদাভাবে ধৰ্ম পরিবর্তনের জালে ফেলা হলয়েছিল। সোমবার দিন ৩ জনের মাথা মুড়িয়ে, মন্ত্রউচ্চারণ করিয়ে তাদের শুদ্ধিকরণ করা হয়।

৩ ব্যাক্তি জানিয়েছেন যে তারা লোভে পড়ে ইসলাম কবুল করেছিলেন। আজ থেকে দেড় বছর আগে অরবিন্দ কাশ্যপ নামের ব্যাক্তি ইসলাম কবুল করে আকবর আলি হয়েছিল। অরবিন্দ জানিয়েছেন, তিনি ১০ লক্ষ টাকার লোভে এই পাপ কাজ করেছিলেন।

অমিত নামের এক ব্যক্তিকে টাকার সাথে সাথে সুন্দরী বিবি জোগাড় করে দেওয়ায় লোভ দেখানো হয়েছিল। লক্ষণীয়, অমিত আগে থেকেই বিবাহিত ছিলেন এবং তার ৩ টি বাচ্চা রয়েছে। অমিত ইসলাম কবুল করে আব্দুল্লাহ নাম করেছিল। একইভাবে রোশন লাল নামের ব্যাক্তি ইসলাম কবুল করে রোশন বেগ হয়েছিলেন। এখন এই তিনজনেই এক সাথে স্বধর্মে ফিরে এসেছেন এবং গর্ব অনুভূতি করছেন বলে জানিয়েছেন।