Press "Enter" to skip to content

হিন্দু যুবকের সাথে হলো প্রেম, নাম পাল্টে যুবতী হলেন জ্যোতি! পরিবারের সাথে বিদ্রোহ করে নিল সাত পাক

[ad_1]

বর্তমানে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়া তে খুব ভাইরাল হচ্ছে। সেখানে একটি মেয়ে তার প্রাণ ভিক্ষা চাইছে তার বাড়ির থেকে। মেয়েটি জানাই তার বাড়ি উত্তরপ্রদেশের বেরিলিতে এবং সে একটা হিন্দু ছেলে কে বিয়ে করেছে হিন্দু বিধি মেনে সাতপাকে বাধা পড়েছে। সে তার নিজের ইচ্ছায় হিন্দু ধর্ম গ্রহন করেছে। কিন্তু সে এখন দিনের পর দিন হুমকি পাচ্ছে তার নিজের বাড়ি থেকেই।

জিতান নাম পাল্টে মেয়েটি নিজের নাম জ্যোতি রাখে হিন্দু মতে। সচিন ও জিতনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক অনেক দিনের কিন্তু পরিবারের চাপে তারা বিয়ে করতে পারেনি। তাই তারা পালাবার সিদ্ধান্ত নেয় এবং হিন্দু মতে মঙ্গলসূত্র পরিয়ে সাতপাকে ঘুরে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়।

জ্যোতি শচীনকে নিয়ে খুব খুশি কিন্তু তার খুশি পরিবারের সদস্যদের ভালো লাগছে না। তারা চায় না শচীন ও জ্যোতি একসঙ্গে থাকুক। জিনাত ওরফে জ্যোতির পরিবারের সদস্যরা শচীনের বিরুদ্ধে ক্যান্ট থানায় অপহরণের মামলা করেছেন। একই সঙ্গে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে এবং এখন পুলিশ তার চিকিৎসা করিয়ে আদালতে জবানবন্দি দেবে। শচীন বলেছেন যে তিনি জ্যোতিকে খুব খুশি রাখবেন এবং সর্বদা তাকে সমর্থন করবেন।

পণ্ডিত কে কে শঙ্খধর, যিনি জ্যোতি এবং শচীনকে বিয়ে করেছিলেন, বলেছেন যে তাদের জীবন বিপদে রয়েছে। তিনি আরো বলেন, দুজনেই বিয়ে করেছেন এবং দুজনেই একসঙ্গে থাকতে চান। মেয়েটি নিজের ইচ্ছায় হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছে। পুলিশের মতে যা সিদ্ধান্ত হবে সব আদালত নেবে।

[ad_2]