Press "Enter" to skip to content

হেলিকপ্টার, আর্মড ভেহকিলস নিয়ে তালিবানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামল মিলিশিয়ান ফোর্স


নয়া দিল্লিঃ আফগানিস্তানের প্রাক্তন উপরাষ্ট্রপতি অমরুল্লাহ সা যেদিন থেকে নিজেকে দেশের কার্যবাহ ঘোষণা করেছেন, সেদিন থেকে তিনি তালিবানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামার প্রস্তুতি নিয়েছে। এবার পঞ্জশির নিয়ে বড় বয়ান দিয়ে অমরুল্লাহ বলেছেন, ‘তালিবরা প্রতিবেশী অন্দরব উপত্যকার অ্যাম্বুশ অঞ্চলে আটকা পড়ার পর পঞ্জশির প্রবেশদ্বারের কাছে বাহিনীকে একত্রিত করেছে। এদিকে প্রতিরোধ বাহিনী দ্বারা সালং মহাসড়ক বন্ধ রয়েছে। দেখা হবে।”

উত্তর আফগানিস্তানে ের ির জানিয়েছে যে, তাঁরা পঞ্জশির উপত্যকার তিনটি জেলায় কবজা করে নিয়েছে। আফগানিস্তানের সেনা, স্থানীয় মানুষ আর মিলিশিয়া সম্প্রদায়ের মানুষ এক হয়ে সেখানে তালিবানের বিরুদ্ধে লড়ছে। আর তাঁদের নেতৃত্বে রয়েছেন আহমেদ মাসুদ। পাশপাশি এই বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সবথেকে বড় শক্তি হয়ে দাঁড়িয়েছেন খোদ আফগানিস্তানের কার্যবাহ রাষ্ট্রপতি

অন্যদিকে, তালিবানও মাসুদ বাহিনীর হাত থেকে পঞ্জশির ছিনিয়ে নিতে শয়ে শয়ে সেনা পাঠিয়েছে। কিন্তু এরই মধ্যে পঞ্জশির উপত্যকায় আগে থেকে লুকিয়ে থাকা মাসুদের বিদ্রোহী গোষ্ঠী তালিবানদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাঁদের ৩০০ জনকে নিকেশ করেছে। যদিও তালিবান এই কথা অস্বীকার করেছে।

জানা গিয়েছে যে, মিলিশিয়া সম্প্রদায়ের ৬ হাজারের বেশি যোদ্ধা পঞ্জশির উপত্যকায় একত্রিত হয়েছে। তাঁদের কাছে কয়েকটি আর সেনার বাহনও হয়েছে। এছাড়া ওই হেলিকপ্টার আর সেনার বাহনগুলি ছাড়া সোভিয়েত সঙ্ঘ দ্বারা সেখানে ফেলে যাওয়া কিছু আর্মড ভেহকিলসও হয়েছে।