Press "Enter" to skip to content

১০০০ বছর পর পূর্ন হবে রাজা ভোজের স্বপ্ন! মন্দিরের বাকি থাকা নির্মাণকাজ সম্পূর্ণ করবে মোদী সরকার

রাজা ভোজের স্বপ্নকে পূরণ করার জন্য কেন্দ্রের মোদী সরকার বড়ো পদক্ষেপ নিয়েছে। যার জেরে মধ্যেপ্রদেশের ভোজপুর গ্রামে আনন্দের বাতাস বইতে শুরু করেছে। মধ্য প্রদেশের রায়সেনের বেতওয়া নদীর তীরে অবস্থিত ভোজপুর গ্রামের শিবমন্দিরের শেষ করার সিধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রের মোদীর সরকার। ইসলামিক আক্রমণকারী মেহমুদ গজনীর উপর প্রতিশোধ নেওয়ার পর রাজা ভোজ এই মন্দিরের নির্মাণ করেছিলেন। মধ্যেপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল থেকে ভোজপুরের দূরত্ব ৩২ কিমি।

এক রিপোর্ট অনুযায়ী, ১০০০ বছর আগে রাজা ভোজ যখন মন্দির নির্মাণ করেছিলেন তখন গুম্বজ ও কিছু অংশ বাকি রয়েগেছিল। রাজার পরলোকগমনের কারণে মন্দিরের কিছু কাজ বাকি রোয়েগেছিল বলে মনে করা হয়। এখন কেন্দ্র সরকার বাকি থাকা নির্মাণ কাজ সম্পূর্ণ করতে চলেছে।

মন্দিরের নকশা রাজা যেভাবে ভেবেছিলেন ঠিক সেইভাবেই মন্দিরের কাজ সম্পূর্ণ করা হবে। এই মন্দিরকে উত্তররের সোমনাথ বলা হয়। মন্দিরের মধ্যে যে শিবলিঙ্গ রয়েছে তা বিশাল (উচ্চতা প্রায় ২১ ফুট)। সিঁড়ি লাগিয়ে পুরোহিতকে পূজা অর্চনার কাজ করতে হয়।

মেহমুদ গজনবী সোমনাথ মন্দিরে আক্রমন করেছে শুনে রাজা ভোজ ক্রুদ্ধ হয়েছিলেন। ভগবান শিবের অপমানের বদলা নিতে উনি মেহমুদ গজনবীর উপর আক্রমন করে দেন। গজনী ভয়ে মরুভুমির পথে পলায়ন করে। তবে গজনীর ছেলে সালার মাসুদ মারা পড়ে। ধর্মের অপমানের প্রতিশোধ নেওয়ার পর রাজা ভোজ এই মন্দিরের নির্মাণ শুরু করেছিলেন। যার বাকি থেকে যাওয়া কাজ মোদী সরকার সম্পূর্ণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।