Press "Enter" to skip to content

১৯৭৫ সালে আজকের দিনে বাঁধা হয়েছিল সংবাদ মাধ্যমের হাত! শয়ে শয়ে সাংবাদিকদের বানানো হয়েছিল কয়েদি

নয়া দিল্লীঃ জুন মাসকে ভারতীয় রাজনীতির ইতিহাসে এমার্জেন্সির (The Emergency) জন্য যুগ যুগ ধরে মনে রাখা হবে। দেশের এমার্জেন্সি লাগু করার দুই দিনের মধ্যে রাজনৈতিক বিরোধী আর আন্দোলনকারিদের গতিবিধির উপর কড়া নজরদারির সাথে সাথে ব্যাপক পরিমাণে ধরপাকড় চলে। আর এর সাথে সাথে স্বাধীন প্রথম ১৯৭৫ সালে আজকের দিনে গোটা দেশে প্রেসের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়।

সেই সময় এরকমই পরিস্থিতি হয়ে উঠেছিল যে, ের কাগজে ছাপা খবর গুলোকে সেন্সর করে দেওয়া হত আর খবর ছাপার আগে ের কাছে অনুমতি নিতে হত।

এমার্জেন্সির সময় ৩ হাজার ৮০ টি খবরের কাগজের ডিক্লারেশন বাজেয়াপ্ত করে নেওয়া হয়েছিল। ২৯০ টি পেপারের বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল আর ৩২৭ জন সাংবাদিককে নজরবন্দী করে রাখা হয়েছিল। এরপর সরকার টাইম আর দ্য গার্জিয়ান পেপারের প্রতিনিধিদের ভারত ছাড়ার সার্কুলারও জারি করেছিল। রয়টার্স সমেত অন্যান্য এজেন্সি গুলোর টেলেক্স আর টেলিফোনের লাইন কেটে দেওয়া হয়েছিল।

আপানদের জানিয়ে দিই, দেশের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী (Indira gandhi)  এবং তৎকালীন রাষ্ট্রপতি ফকরুদ্দিন আলী আহমেদ গোটা দেশ জুড়ে ১৯৭৫ সালের ২৬ জুন এমার্জেন্সি ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপতির ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী রেডিওর মাধ্যমে দেশে এমার্জেন্সি লাগু করার কথা অবগত করান।