Press "Enter" to skip to content

৩৮ বছর ধরে আটকে ছিল চুক্তি, অবশেষে চীনকে ঝটকা দিয়ে বড় জয় ছিনিয়ে নিল ভারত

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ চীনকে ঝটকা দিয়ে ভারত ও শ্রীলঙ্কার সম্পর্ক আরও একবার উন্নতি হতে শুরু করেছে। চীন শ্রীলঙ্কায় দূষিত জৈব সার পাঠানোর পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হয়ে উঠেছে। আর এখন খবর আসছে যে, শ্রীলঙ্কা আনুষ্ঠানিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক প্রকল্পে ভারতকে অন্তর্ভুক্ত করায় সিলমোহর দিয়েছে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এখন ভারত ও শ্রীলঙ্কা যৌথভাবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নির্মিত ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক কমপ্লেক্স পুনর্নির্মাণ করবে। শ্রীলঙ্কার গোটাবায়া রাজাপক্ষে সরকার ভারতের সঙ্গে একসাথে ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক প্রকল্প নির্মাণের অনুমোদন দিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শ্রীলঙ্কার সরকার কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক কমপ্লেক্সের বিষয়ে ভারত সরকারের সাথে তিনটি চুক্তি পর্যালোচনা করার পর বলেছে যে উভয় পক্ষই এই যৌথ উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে সম্মত হয়েছে।

সরকারের তথ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সোমবার অনুষ্ঠিত বছরের প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্তে ভারত ও শ্রীলঙ্কা কূটনৈতিক মাধ্যমে ‘যৌথ উন্নয়ন প্রকল্প’ বাস্তবায়নে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, মন্ত্রিসভা ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক কমপ্লেক্সের ২৪টি তেল ট্যাঙ্কার সিলন পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন (CPC) এবং ১৪টি তেল ট্যাঙ্কার ভারতীয় তেল কোম্পানির একটি স্থানীয় সহায়ক সংস্থা (LIOC) কে বরাদ্দ করার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অবশিষ্ট ৬১টি তেল ট্যাঙ্কারকে ট্রিনকো পেট্রোলিয়াম টার্মিনাল প্রাইভেট লিমিটেড-এ স্থানান্তর করা হয়েছে। এই কোম্পানিতে সিপিসি ৫১ শতাংশ এবং LIOC ৪৯ শতাংশ অংশিদারিত্ব রয়েছে। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, শীঘ্রই এই প্রকল্পের চুক্তি স্বাক্ষর হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

trincomalee oil tank farm

২৯ অক্টোবর ১৯৮৭-এ ভারত-শ্রীলঙ্কা সমঝোতায় এই চুক্তিটি প্রথমবাড় উল্লেখ করা হয়েছিল। দুই দেশ যৌথভাবে এই ট্যাঙ্ক তৈরি করবে বলে বলা হয়েছিল, কিন্তু ৩৫ বছর পরও এই চুক্তি আটকে ছিল। একই সঙ্গে ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর তেলের ট্যাঙ্ক কমপ্লেক্সে ভারতীয় অংশিদারিত্বের স্বপ্ন পূরণ করেছে মোদী সরকার, যা দেশে দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকা কংগ্রেস করতে পারেনি।

[ad_2]