Press "Enter" to skip to content

৪৩৫ বছর পর হিন্দুদের গৌরবময় ঐতিহ্য ফিরিয়ে দিচ্ছেন যোগী আদিত্যনাথ।

উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ তার অসাধারণ কাজের জন্য দেশখ্যাত। সম্প্রতি আরো একটা বড়ো সু যোগী আদিত্যনাথের রাজ্য উত্তরপ্রদেশ থেকে আসছে। আপনারা হয়তো জানেন, যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশে আসার পর থেকে বহু স্থানের এবং শহরের নাম পরিবর্তন করেছেন। উদাহরণসরূপ, মোঘলসরা এর নাম পরিবর্তন করে দিনদয়াল উপাধ্যায় এর নামে রেখেছেন।

সম্প্রতি যে খবর সামনে এসেছে সেই অনুযায়ী, উত্তরপ্রদেশের হিন্দুতীর্থস্থল যা এলাহাবাদ নামে পরিচিত সেই নাম পরিবর্তন করে প্রয়াগরাজ রাখা হবে। যোগী সরকারের উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য জানিয়েছেন কুম্ভমেলা শুরু হওয়ার আগেই এই ঘোষণা করা হবে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, এলাহাবাদের আসল নাম প্রয়াগরাজ এবং হিন্দুমতে এই স্থানকে সব তীর্থস্থলের মধ্যে শ্রেষ্ঠ মনে করা হয়। ী আক্রমণকারী দ্বারা এই স্থানের নাম পরিবর্তন করে এলাহাবাদ রাখা হয়েছিল। ১৫৮৩ তে, প্রয়াগরাজের নাম পরিবর্তন করে প্রথমে আল্লাহবাদ এবং পরে এলাহাবাদ করেছিল বলে জানা যায়। কিন্তু বর্তমানে যোগী সরকার ৪৩৫ বছর পর আবার সেই নাম ফিরিয়ে হিন্দুদের গর্ব ফিরিয়ে দিতে চলেছেন।

প্রয়াগরাজ নাম হিন্দুদের আস্থার সাথে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে আছে আর সেকারণেই আকবরের এতবছর নাম পরিবর্তনের পরেও ভারতের মানুষ তীর্থের সময়কালে এলাহাবাদকে প্রয়াগরাজ বলেই প্রকাশ করতেন। হিন্দুদের জন্য এটা খুবই আনন্দের বিষয় যে ৪৩৫ বছর পর যোগী সরকার প্রয়াগরাজের আসল নাম ফিরিয়ে হিন্দুঐতিহ্য ও সঙ্গস্কৃতির গৌরব ফিরিয়ে আনলেন।

আপনাদের আরো জানিয়ে রাখি, এই নাম পরিবর্তনের জন্য যোগী আদিত্যনাথ ছাড়াও আরো একজনের অবদান রয়েছে তিনি হলেন রামসেতু রক্ষাকারী সাংসদ সুব্রামানিয়াম স্ীজি।
আসলে যোগী আদিত্যনাথ মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরেই স্বামীজি যোগী আদিত্যনাথকে এলাহাবাদের নাম পরিবর্তন করে প্রয়াগরাজ করার জন্য বলেছিলেন। এমনকি সুব্রামানিয়াম স্বামী উত্তরপ্রদেশে যোগী সরকার আসার আগে থেকে প্রয়াগরাজ নাম রাখার জন্য দাবি করে এসেছেন। আর সেই কারণে দেশের মানুষ টুইট করে সুব্রামানিয়াম স্বামী এবং যোগী আদিত্যনাথকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তবে ধন্যবাদের উত্তরে সুব্রামানিয়াম স্বামী যা বলেছেন তা জানলে আপনারা আরো খুশি হবেন। স্বামী বলেছেন, কাজ এখনো সমাপ্ত হয়নি, এবার কর্ণাবতীর পালা। আসলে গুজরাটের আমেদাবাদের নাম কর্ণাবতী রাখার জন্য বহুদিন থেকে দাবি করে আসছে রাষ্ট্রবাদীরা। প্রসঙ্গত, আহমেদ শাহ হিন্দুশহর কর্ণাবতীর নাম পরিবর্তন করে আহমেদবাদ রেখেছিলেন। এখন স্বামী পরিষ্কার জানিয়েছেন যে তিনি এই নাম পরিবর্তন করার জন্য লড়াই চালাবেন এবং কর্ণাবতী নাম রাখবেন।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.