Press "Enter" to skip to content

৯০ শতাংশ সরকারি ভর্তুকি নিয়ে শুরু করুন এই ব্যবসা, মাস গেলে হবে লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন

নয়া দিল্লিঃ করোনা কালে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ভারতীয় গ্রামীণ অর্থব্যবস্থা। বিশেষত অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের এই মুহূর্তে অবস্থা যথেষ্ট খারাপ। কয়েক কোটিরও বেশি মানুষ মধ্যবিত্ত থেকে নিম্নবিত্তে পরিণত হয়েছেন। এমতাবস্থায় অনেকেই নতুন ব্যবসার সন্ধান করছেন ফের একবার আর্থিক হালতকে ট্রাকে ফেরাতে। আপনি যদি করে গ্রামের দিকে বসবাস করেন তাহলে আজ যে ব্যবসার কথা বলতে চলেছি তা আপনার জন্য যথেষ্ট লাভজনক হয়ে উঠতে পারে।

ছাগল প্রতিপালনের ব্যবসা গ্রামের দিকে বহুদিন ধরেই চলে আসছে। তবে বড় আকারে এই ব্যবসা করতে পারলে কিন্তু মাসিক ভালো টাকা আয় করতে পারবেন। ছাগল প্রতিপালন এমন একটি ব্যবসা যেখানে প্রায় 90% ভর্তুকি দিয়ে থাকে । হরিয়ানা সরকারের পক্ষ থেকে, গ্রামীণ এলাকায় পশুপালনকে উন্নীত করতে এবং স্ব-কর্মসংস্থান গ্রহণের জন্য, গবাদি পশুর মালিকদের 90 শতাংশ পর্যন্ত ভর্তুকি দেওয়া হচ্ছে। অর্থাৎ আপনার যদি খুব বেশি বিনিয়োগ করার পর জন্য পয়সা না থাকে তা হলেও আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। ছাগলের মাংস ভারতীয়দের প্রধান খাদ্যের মধ্যে একটি। আর তার দামও যথেষ্ট।

আপনাকে জানিয়ে রাখি, পশু পালনের জন্য ের তরফে 35% ভর্তুকি তো দেওয়া হচ্ছেই এছাড়া রাজ্য সরকারেরও বেশকিছু স্কিম রয়েছে। ব্যবসা শুরু করার জন্য প্রয়োজনে NABARD থেকে লোনও নিতে পারেন আপনি। এই ব্যবসা কিন্তু মোটেই শুধুমাত্র গ্রামভিত্তিক নয়।বর্তমানে এটি একটি বাণিজ্যিক ব্যবসা হিসাবেও বিবেচিত হয়।

এই ব্যবসা শুরু করার জন্য, আপনার বড় জায়গা, পশুখাদ্য, বিশুদ্ধ জল, প্রয়োজনীয় শ্রমিক, পশুচিকিৎসা সহায়তা, বাজার সম্ভাবনা এবং রপ্তানির সম্ভাবনা সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে। জানিয়ে রাখি শুধু মাত্র 18 টি মাদি ছাগল চাষ করেই 2,16,000 টাকা আয়, একই সংখ্যক পুরুষ ছাগল চাষ করলে আয় হতে পারে প্রায় 1 লক্ষ 98 হাজার টাকা অবধি।