Press "Enter" to skip to content

একসাথে বিজেপিতে যোগদান করলো ১৮ হাজারের বেশি সদস্য! বিজেপির শক্তি দেখে ঘুম উড়লো কংগ্রেসের।

২০১৯ এ লোকসভা নির্বাচন হতে চলেছে, যার জন্য দেশের দুই বড় পার্টি ও কংগ্রেস প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিয়েছে। দুই পার্টি চাইছে নির্বাচনের আগে যতসম্ভব বেশি মানুষ পার্টির সাথে জুড়ে পার্টিকে শক্তিশালী করে তুলুক। কিন্তু সদস্য টানার এই দৌড়ে এখন পার্টি কংগ্রেসের থেকে অনেক এগিয়ে গেছে। দেশের জনগণ কংগ্রেসের থেকে যোগের দিকে বেশি আগ্রহ প্রকাশ করছে। সম্প্রতি ও কংগ্রেসে কতজন মানুষ যোগদান করেছে তার উপর একটা সার্ভেও সামনে এসেছে। বিগত কিছুমাসে কতজন পার্টিতে যোগদান করেছে তার পরিসংখ্যান সামনে আসার পর কংগ্রেসের রাতের ঘুম উড়ে যাওয়ার মতো অবস্থা হয়েছে।

শুধুমাত্র কেরালা জেলায় বিগত ৪ মাসে ১১ টি জেলা থেকে মার্কসবাদী কমিউনিস্ট , ভারতীয় কমিউনিস্ট ও স্থানীয় নেতা সমেত ১৮৬০০ জন সদস্য বিজেপিতে যোগদান করেছেন। শনিবার দিন কেরালার বিজেপির সভাপতি শ্রীধরন পিল্লাই বলেছেন আগত দিন বাকি দলের সদস্য ও কার্যকর্তাদেরকেও বিজেপিতে সামিল করা হবে এবং বিজেপিকে মজবুত করা হবে।

শুধু এই নয়, শ্রীধরন পিল্লাই কেরালার বিভিন্ন জেলায় অন্য পার্টি থেকে বিজেপিতে যোগদান করা মানুষজনের নামের সুচি পেশ করেছেন। পিল্লাই খুব শীঘ্রই জেলা স্তরীয় সম্মেলনের আয়োজন করবেন যেখানে বিভিন্ন পার্টির কার্জকর্তাদের বিজেপিতে নিয়ে আসা হবে।

এমনিতে দক্ষিণ ভারতে বিজেপির শক্তি খুব কম রয়েছে কিন্তু এখন মজবুত নেতার শক্তিশালী সভাপতিত্বে বিজেপি ধীরে ধীরে শিকড় জমাতে শুরু করেছে। পিল্লাই বলেছেন বিজেপি একটা স্বতন্ত্র রাষ্ট্রীয় পার্টি যেখানে যেকোনো সদস্য নিজের মত প্রকাশ করতে পারে। অন্যদিকে বাকি দলগুলিতে নিজের মনের কথা খুলে বলার মতো জায়গা থাকে না। এই কারণে জনগণ বিজেপির প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে বলে দাবি পিল্লাই এর।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.