2019 আসার আগেই বিরোধী জোটে পড়ল ভাঙন ! যা বলে দিচ্ছে অবকি বার ফিরসে মোদী সরকার !

[sg_popup id=”9" event=”onload”][/[/sg_popup]p>

২০১৯ লোকসভা নির্বাচন এখনো অনেক দেরি, কিন্তু তার আগেই প্রধানমন্ত্রীকে হারাবার জন্য লেগে পরে উঠেছে সমস্ত বিরোধী দল! বর্তমানে মোদী ঝড়ের কাছে সবই ফিকে তার প্রমান পাওয়া গেছে একের পর এক বিধানসভা ভোটে! তাই এবার বিরোধীরা এক হতে শুরু করেছে কেবল মোদীকে হারানোর জন্য! যদিও বিরোধী দলগুলোর মধ্যে কোনো দলের বিচার ধরা এক নয়, সকলেই নিজেদেরকে বেশি গুরুত্ত্ব দিয়ে থাকে, তবুও মোদীকে হারাতে তারা এক হতে ইচ্ছুক !

কিন্তু ইচ্ছা থাকলেই তো আর সবকিছু হয় না, কর্ণাটকের মুখয়মন্ত্রীর শপথ গ্রহণ সভায় একসাথে 22 তা দল জোট বাঁধার ইচ্চা প্রকাশ করে, কিন্তু প্রত্যেকটি দলের সর্বোচ্চ নেতা বা নেত্রীরা নিজেদের প্রধানমন্ত্রীর পদে দেখতে চাই ! তা সেটা কংগ্রেসের রাহুল বলুন, বসপার মায়াবতী, কিংবা তৃণমূলের মমতা সবাই নিজেদের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই !

আরোও পড়ুন – আবার হল তৃণমূলে বড়সর ভাঙ্গন , জানেন কোথায় ?

কিন্তু বর্তমানে কেবল মোদীকে হারাতে এক হওয়ার আগেই কি বিরোধীদের মহাজোটে ফাঁটল ধরতে শুরু হয়ে গেল। শোনা যাচ্ছে মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে এবার মায়াবতীর দল সবকটি আসনেই মানে ২৩০ টি আসনেই প্রার্থী দেবে তার মানে বলায় যায় যে এবার মায়াবতীর দল সেখানে একাই লড়বে।

আরও পড়ুন- আপনি ঈদ পালন করেননি, তাহলে কি আমরা আপনাকে হিন্দু নেতা বলতে পারি?” এই প্রশ্নের উত্তরে যোগী আদিত্যনাথ যা উত্তর দিলেন

মধ্যপ্রদেশের বসপা সভাপতি নর্মদা প্রসাদ আহিরওয়ার স্পষ্ট জনিয়ে দিল যে তারা কংগ্রেসের সাথে কোনো জোট করছেন না। তিনি বলেন যে বিধানসভা নির্বাচনে জোট নিয়ে কোনো দলের সাথে কোন কথা হয় নি।রাহুল গান্ধী সমস্ত আঞ্চলিক দল গুলি কে নিয়ে জোট করার জন্য বসপা ও সপার শীর্ষ নেতৃত্বের সাথে বৈঠক করেছেন। ফলে রাজনৈতিক মহলের অন্তরে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে যে আহিরওয়ার এই মন্তব্যতে কি সেই প্রক্রিয়া কিছু টা হলেও বাঁধা পড়ল।
এই মধ্যেই মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র মনক আগরওয়াল বলেন যে কংগ্রেসের সাথে যে যে দলের মতের মিল রয়েছে মুলত তাদের সাথেই জোট করবো। আমরা এখন কারুর নাম বলি নি। তবে তার কথা শুনে বোঝা গেল যে তিনি কোনো পরিস্থিতিতেই জোটের সুতো ছিঁড়তে চান না।

আরোও পড়ুন – আবার ইতিহাস গড়লেন মোদীজি
২০১৩ তে বসপা ২২৭ টি আসনে লড়ে মাত্র ৪ টিতে জয় লাভ করতে পেরেছিল যেটা গত দশ বছরের তুলনায় অনেক কম। তাই এবার বিজেপি কে আঁটকাতে যেমন করেই হোক সমস্ত আঞ্চলিক দল গুলিকে পাশে পেতে চাইছে কংগ্রেস। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে বসপার হাত ধরে এগোলে কংগ্রেসের সুবিধা হবে।

আরোও পড়ুন – আবার হল তৃনমূলের কুকীর্তি ফাঁস 
শোনা যাচ্ছে যে এবার বসপা ২৩০ টি আসনে একাই লড়বে তাই কংগ্রেসের সাথে তাদের জোটের কোনো সম্ভোবনা নেই ফলে এতে বিজেপির সুবিধা হবে বলেই বিশেষজ্ঞদের মত। এই খবর পেয়ে টানা ১৫ বছর রাজত্বে থাকা বিজেপি বেজায় খুশি। তবে এখনো কোনো কিছুই চুড়ান্ত হয় নি।

আরোও পড়ুন- 2019 এ বিরোধীদের চিত করার জন্য মোদীজির নতুন মাস্টার প্ল্যান !
#অগ্নিপুত্র

Leave a Reply

you're currently offline

Open

Close