Press "Enter" to skip to content

শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্যবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে ৬০ হাজার শিক্ষক যোগ দিলেন বিজেপিতে

লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজার পর থেকেই রাজ্যে গেরুয়া শিবিরে যোগদানের হিড়িক পড়ে গিয়েছে। লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হতেই এই হিড়িক আরও বেড়ে গিয়েছে। প্রতিদিনই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার মানুষ তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জাহির করে যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে। এমনকি শাসক দলের অনেক নেতা, বিধায়ক, কাউন্সিলর, পঞ্চায়েত সদস্যও যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। লোকসভা ভোটের ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই এরাজ্যে বেশ কয়টি পুরসভা ও পঞ্চায়েতে দখল বসিয়েছে বিজেপি। আর এই কারণে চরম ব্যাকফুটে তৃণমূল কংগ্রেস। হাজার চেষ্টা করেও দলে ভাঙন রুখতে ব্যার্থ তাঁরা।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চক্রবর্তী জানান, ‘ রাজ্যে মমতা ব্যানার্জীর সরকার আসার পর উন্নয়নের গল্প শোনানো হয়েছিল। কিন্তু এত বছর ক্ষমতায় থাকার পরেও, উন্নয়ন দূরের কথা উলটে শিক্ষাক্ষেত্র ভরে গিয়েছে চরম বিশৃঙ্খলায়। প্রতিবাদও সঠিক ভাবে করা যাচ্ছেনা। এই কারণেই রাজ্যের হাজার হাজার শিক্ষক যোগ দেন বিজেপিতে।”

এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ। এদিন তিনি ঘোষণা করে বলেন, ‘ এই মঞ্চ থেকে শিক্ষাক্ষেত্রের যে কোন রকম অন্যায়ের প্রতিবাদ করা যাবে নির্ভয়ে।” এছাড়াও রবিবার বিজেপিতে যোগ দেয় পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন। এই সংগঠন থেকেও প্রায় ৪০০ জন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেয়।

২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে মাঠে নামতে চলেছে বিজেপি। বিকেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব অনুযায়ী এবার এরাজ্যে ২৫০ এরও বেশি আসন দখল করে তাঁরা ক্ষমতায় আসতে চায়।

you're currently offline