Press "Enter" to skip to content

উঠে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য! কাশ্মীরের ৮৩ শতাংশ জঙ্গিরা আগে পাথর ছোড়ার কাজ করত

উপত্যকায় আর ের অনেক বড় কানেকশন আছে। আর এই তথ্য শুক্রবার একটি প্রেস বার্তায় জানায়। সেনার ১৫ তম কোর কম্যান্ডার লেফটিন্যান্ট জেনারেল কেজেএস ঢিলোন একটি প্রেস বার্তায় বলেন, ধৃত ৮৩ শতাংশ জঙ্গি এর আগে ে পাথর ছোড়ার কাজ করত। এর আগে উনি বলেন, সীমান্তের কাছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আর অনেক শান্তিপূর্ণ আছে। জানায়, তাঁরা পাকিস্তানকে কাশ্মীরে শান্তি ভঙ্গ করতে দেবেনা।

ঢিলোন শ্রীনগর শ্রীনগরে সেনার একটি সংযুক্ত সংবাদ সন্মেলনে বলেন, উপত্যকায় আইইডি বিস্ফোরণের আশঙ্কা অনেক বেশি। কিন্তু নিয়মিত ভাবে তল্লাশি অভিযান চালিয়ে সেনা এই ঘটনা গুলোকে সুরক্ষিত ভাবে হ্যান্ডেল করছে। উনি বলেন, শোপিয়ানে তল্লাশি অভিযান চলছে সেখানে বৃহস্পতিবার রাতে সেনার উপর হামলা করার চেষ্টা করা হয়েছিল। উনি বলেম অভিযানের সময়, পাকিস্তানের অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরিতে নির্মিত একটি অ্যান্টি পার্সোনাল মাইন উদ্ধার করা হয়েছে। ওই মাইনে পাকিস্তানের অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরির চিহ্ন ছিল।

সেনার এক আধিকারিক জানান, অমরনাথ ধাম যাত্রার রাস্তায় সেনা তল্লাশি অভিযান চালিয়ে প্রচুর পরিমাণে অস্ত্র এবং বিস্ফোটক উদ্ধার করেছে। উদ্ধার হওয়া অস্ত্রের মধ্যে আমেরিকার এম-২৪ রাইফেলও আছে। কাশ্মীরের আইজি এসপি পাণি বলেন, উপত্যকার পুলওয়ামা আর শোপিয়ান এলাকায় আইইডি বিস্ফোরণ করানোর জন্য ১০ বারের বেশি চেষ্টা চালিয়েছিল জঙ্গিরা।