লজ্জাজনক ! দুবাইতে লাইভ টেলিকাস্ট বন্ধ করলো কংগ্রেস, ১৪ বছরের মেয়ের প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলো না রাহুল গান্ধী।

দুবাইতে রাহুল গান্ধীর লজ্জাজনক অবস্থা এখন খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে, এর কারণ ১৪ বছরের বালিকা দ্বারা উঠানো প্রশ্ন। কংগ্রেস সভাপতি হওয়ার পর থেকে রাহুল গান্ধীর এটা এই প্রথম দুদিবশীয় দুবাই যাত্রা। জানিয়ে দি, রাহুল গান্ধী দুবাইতে সেখানের উপরাষ্ট্রপতি মহম্মদ বিন রশিদের সাথে দেখা করার পর এক অধিবেশনে যোগদান করেন। এই অধিবেশনের আয়োজন সেখানে বসবাস করা ভারতীয় জনগণ করেছিল। অধিবেশনে রাহুল গান্ধী ভারতের মোদী সরকারে উপর আক্রমণ করার পাশাপাশি উপস্থিত জনগণের কিছু প্রশ্নের উত্তরও দেন। প্রশ্ন উত্তর চলাকালীন এক ১৪ বছরের বালিকা রাহুল গান্ধীকে প্রশ্ন করার জন্য হাত উপরে তোলে। রাহুল গান্ধী ভলান্টিয়ারদের ইশারা করে মাইক ওই বাচ্চা মেয়েকে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এরপরে যা ঘটনা ঘটে তা সকলকে চমকিত করে দেয়।

ওই বালিকা রাহুল গান্ধীকে প্রথম প্রশ্নে বলেন, যে রাহুল গান্ধী সামাজিক বিভেদের উপরে প্রশ্ন তুলেন সেই রাহুল গান্ধী কেন বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রূপ দেখান তথা গুজরাটে গিয়ে মাথায় ভস্ম লাগান এবং কাশ্মীরে গিয়ে মাথায় মুসলিম টুপি কেন পরেন?
এর উত্তরে রাহুল গান্ধী বলেন উনার উদ্দেশ্য সব ধর্মের সাথে সমান ব্যাবহার করা।
বালিকা দ্বিতীয় প্রশ্নে বলে, কংগ্রেস দাবি করে যে তারা ভারতে বহু সময় রাজত্ব করেছে। সেই সময় তো বিকাশ ও জনকল্যাণ এর কাজ হয়নি। তাহলে এখন কি সেই কাজ হবে?

এই প্রশ্ন থেকে উৎপন্ন হওয়া লজ্জা রাহুল গান্ধীকে বিচলিত করে তোলে। রাহুল গান্ধী প্রত্যেক বারের মতো ছোট হাসি দিয়ে প্রশ্ন বাতিল করে দেওয়ার চেষ্টা করে। দুবাই সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী এই প্রশ্নের জন্য কংগ্রেস পার্টি তাদের লাইভ টেলিকাস্ট বন্ধ করে দেয়।

মাইক বালিকার হাতে থাকার জন্য সে বলতে থাকে। ওই বালিকা বলে যে প্রধানমন্ত্রী মোদী ক্ষমতায় আসার জন্যেই পুরো বিশ্বে ভারত নতুন প্রভাবিত দেশ রূপে সুনাম অর্জন করেছে। বালিকা রাহুল গান্ধীকে একটা উপদেশও প্রদান করে। বালিকা বলে যে তার উচিত জাতিভেদ না বাড়িয়ে দুর্নীতিগ্রস্থ শাসনমুক্ত রাজ গড়ে তোলার শপদ নিয়ে মানুষের কাছে ভোট চাওয়া উচিত। এই প্রশ্ন উত্তর চলাকালীন পুরো আয়োজনস্থল নিঃশব্দ হয়ে উঠেছিল এবং ছোট্ট মেয়েটির প্রশ্ন শেষ হওয়ার পর স্থান তালির শব্দে মুখর হয়ে উঠে।

Leave a Reply

you're currently offline

Open

Close