Press "Enter" to skip to content

অসমের এই গ্রামে ৫০০ বছর ধরে শিব মন্দিরের দেখাশোনা করে আসছে এক মুসলিম পরিবার

ভারতের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি গোটা বিশ্বে নজীর সৃষ্টি করেছে। এখানে আলাদা আলাদা ধর্মের মানুষ একে অপরের সাথে মিলে মিশে থেকে দেশের সংস্কৃতি পালন করে। তাই ভারতের ব্যাপারে সবাই বলে, এখানে বৈচিত্রের সম্মিলন দেখতে পাওয়া যায়।

আসামের রঙমহল গ্রাম দেশের এই বৈচিত্রকেই দেখায়। এখানে ৫০০ বছর ধরে এক মুসলিম পরিবার ভগবান শিবের মন্দিরের দেখাশোনা করে আসছে। আসামের রাজধানী গুয়াহাটির কাছে এই মন্দিরে কয়েক দশক ধরে হিন্দু আর মুসলিমরা একসাথে শিব মন্দিরে প্রার্থনা করতে আসে।

কয়েক বংশ ধরে এই মন্দিরের দেখাশোনা করা মতিবর রহমান বলেন, ‘এই মন্দির ৫০০ বছরের ও বেশি পুরানো। আমাদের বংশ এই মন্দিরের দেখাশোনা করে। এখানে হিন্দু, মুসলিম সবাই আসে ভগবান শিবের কাছে প্রার্থনা করার জন্য।”

ভারতে এটাই একমাত্র অনন্য উদাহরণ না, অমরনাথের মন্দিরেও মুসলিমদের অনেক প্রভাব আছে। শোনা যায় অমরনাথ গুহাকে সর্বপ্রথম এক মুসলিম ব্যাক্তিই খুঁজে বের করেছিলেন। অমরনাথ এমন একটা তীর্থস্থল, যেখানে ফুল মালা বিক্রি করে মুসলিমরা।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.