Press "Enter" to skip to content

৮০ বছরের বৃদ্ধাকে যৌনতার শিকার বানালো মহম্মদ আহমেদ নামের যুবক!

এটা কোন ধরনের মানসিক রোগ যে কোনো ব্যাক্তি নারীদের উপর অত্যাচার করতে লজ্জা বোধ করে না। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের প্রশাসনিক শক্তি রয়েছে কিন্তু কট্টরপন্থীরা নারী ও বাচ্চাদের যৌনতার শিকার করতে পিছুপা হচ্ছে না। ভারত দেশে নারীদের এক আলাদা চোখে দেখা হয়, বলা হয় নারীদের মধ্যে ঐশ্বরিক প্রতিভা বেশি পরিমাণে থাকে। কিন্তু সেই দেশের মধ্যেই কট্টরপন্থীরা নারীদের শোষণ করে নারীদের ও দেশের সম্মানকে নষ্ট করার কাজ করছে। বিশেষ করে সম্প্রতি ১ মাস ধরে দেশে উন্মাদীরা দেশে চরম উৎপাত শুরু করেছে। দেশের নানা প্রান্ত থেকে বাচ্চা, মহিলা, যুবতী কট্টরপন্থীদের যৌনতার শিকার হচ্ছে।

এমনি একটা ঘটনা বিহারের মধুবানী জেলার জামেলা থেকে সামনে আসছে। সেখানে মহম্মদ আহমেদ নামের যুবক ৮০ বছরের বৃদ্ধার সাথে কুকর্ম করেছে। মহম্মদ আহমেদের বয়স ১৫ বছর, সে বৃদ্ধা মহিলার উপর শোষণ করতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা পড়েছিল। গ্রামের লোকজন যুবককে ধরে মারধর করে। মারধর করার পর যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পুলিশ অফিসার সত্যপ্রকাশ মহাশয় শুক্রুবার জানিয়েছেন, শোষণ হওয়া মহিলার মেডিকেল চেকআপ জেলার সদর হাসপাতালে করানো হয়েছে।

বৃদ্ধা মহিলা বাড়িতে শুয়ে ছিল, সেই সময় কট্টরপন্থী মহম্মদ আহমেদ এসে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। বিরোধ করায় সে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তা সত্ত্বেও মহিলা চিৎকার করে লোকজন ডাকে। গ্রামের লোকজন হাতে নাতে মহম্মদ আহমেদ নামক যুবককে ধরে ফেলে। এরপর পুলিশকে পুরো মামলার উপর তদন্ত করার জন্য জানানো হয়। মহম্মদ আহমেদ কোন মানসিকতা নিয়ে বা কার থেকে এমন প্রভাবিত হয়ে করেছে এমন কুকাজ পুলিশ তার তদন্ত করছে।

you're currently offline