Press "Enter" to skip to content

ভুয়ো শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রকাশ করে ফেঁসে গেলেন অভিষেক ব্যানার্জী! দায়ের হলো মামলা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর ভাইপো অভিষেক ব্যানার্জী আরো একবার শিরোনামে চলে এসেছেন। অভিষেক ব্যানার্জীর স্ত্রী সোনার সাথে এয়ারপোর্টে আটক হয়েছিলেন, এমন বিতর্কিত খবরের ইস্যুতে অভিষেক ব্যানার্জী চর্চায় এসেছিলেন। আর এখন আরো একবার অভিষেক ব্যানার্জী খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন। মমতা ব্যানার্জীর ভাইপো ভুয়ো ডিগ্রি প্রকাশ করেছনে এই অভিযোগে উনার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জীকে দিল্লীর এক আদালত ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

জানিয়ে দি, লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকে অভিষেক ব্যানার্জীর উপর এই অভিযোগ উঠেছিল যে উনি তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে ভুল তথ্য প্রকাশ করেছেন। CPIM নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছিলেন, তৃণমূল নেতা অভিষেক ব্যানার্জী নির্বাচন কমিশনের কাছে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে যে তথ্য দিয়েছে তা ভুয়ো। সুজন চক্রবর্তীর মত অনুযায়ী, অভিষেক ব্যানার্জী নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া হলফনামায় জানিয়েছেন যে তিনি একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ২০০৮-০৯ সালে পাশ MBA ডিগ্রি নিয়ে পাশ করেছেন। কিন্তু ২০১৪ সালে দিল্লি হাইকোর্টে জমা দেওয়া হলফনামায় ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই জানিয়েছিল যে তারা ডিগ্রি প্রদান করে না।

এখন অভিষেক ব্যানার্জীর উপর হওয়া এই মামলাকে কেন্দ্র করে তৃণমূল কংগ্রেস যাবৎ সমস্যায় পড়েছে। ২০১৯ লোকসভায় তৃণমূল কংগ্রেস বড় ঝটকা খাওয়ার পর এখন সাবধান হয়ে দলকে টেনে তোলার চেষ্টায় রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। তৃণমূল কংগ্রেস দলের ভাবমূর্তি এমনিতেই পশ্চিমবঙ্গে খারাপ হয়ে পড়েছে।
কিন্তু অভিষেক ব্যানার্জীর উপর নতুন অভিযোগ আবারও দলের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন খাঁড়া করছে।