Press "Enter" to skip to content

” স্ট্যাচু অফ উনিটি ” বিশ্বের উচ্চতম মূর্তি কিন্তু সেটি কেবলমাত্র ৩ বছরের জন্য ! এরপর রেকর্ড ভাঙবে ..

আজ ৩১ শে অক্টোবর সর্দার বল্লবভাই প্যাটেলের জন্মদিন, গুজরাটে আজ দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজি সর্দার প্যাটেলের জন্মদিন উপলক্ষে বিশ্বের সবথেকে বড়ো মূর্তি উদ্বোধন করেছেন। সর্দার প্যাটেল খন্ড খন্ড থাকা ভারতকে এক করেছিলেন তাই এই প্রতিমার নাম দেওয়া হয়েছে স্ট্যাচু অফ ইউনিটি। এই মূর্তি ৫ বছরে সম্পুর্নভাবে তৈরি হয়ে গিয়েছে। এই প্রতিমার শিল্যানাস ২০১৩ সালে ৩১ শে অক্টোবর নরেন্দ্র মোদী করেছিলেন। সেই সময় নরেন্দ্র মোদী গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন। এই প্রতিমার ওজন প্রায় ১৭০০ টন , উচ্চতা ৫২২ ফুট অর্থাৎ ১৮২ মিটার । এটাই বর্তমানে বিশ্বের সবথেকে উঁচু প্রতিমা, এই আগে চীনের স্প্রিং টেমপেলের বুদ্ধ প্রতিমা সবথেকে উঁচু ছিল যার উচ্চতা ছিল ১৫৩ মিটার, এর পরের স্থানে ছিল আমেরিকার বিশ্ব প্রসিদ্ধ স্ট্যাচু অফ লিবারিটি যার উচ্চতা ছিল ৯৩ মিটার।

আরও পড়ুনঃ সর্দার প্যাটেল পেলেন যোগ্য সন্মান! খন্ড খন্ড হয়ে যাওয়া ভারতকে এক করেছিলেন প্যাটেল।

সর্দার প্যাটেলের মূর্তি এর দ্বিগুন উচ্চতা রয়েছে যার নির্মানের দায়িত্বে ছিল L&T কোম্পানি। এই প্রতিমা তৈরিতে ২৯৮৯ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। ভারতের বিখ্যাত মূর্তিকারদের দেখাশোনায় এই প্রতিমা তৈরি করা হয়েছে। নরেন্দ্র মোদী গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন এই প্রতিমা নির্মাণের স্বপ্ন দেখেছিলেন, ভিক্ষু বাধা আসার পরেও ৫ বছরের মধ্যে আজ এই স্ট্যাচু তৈরি হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে। তবে এই মূর্তি মাত্র ৩ বছরের জন্য উচ্চতায় প্রথম স্থানে থাকবে।

এরপর আরেক মূর্তি এই রেকর্ড ভেঙে দেবে যার নির্মাণ ভারতেই হচ্ছে। মুম্বাইতে আরব সাগরের প্রান্তে তৈরি হওয়া মহারাজ শিবাজির মূর্তি ৩ বছরের মধ্যে তৈরি হয়ে যাবে যার উচ্চতা সর্দার প্যাটেলের মূর্তি ছাড়িয়ে যাবে। অর্থাৎ ভারতের রেকর্ড অন্য কোনো দেশ নয় বরং ভারত নিজেই ভেঙে দেবে। মহারাজ শিবাজির মূর্তি ২২১ মিটার হবে যার শিল্যান্স ২০১৬ সালে হয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে এই মূর্তি তৈরি হয়ে বিশ্বের সবথেকে উঁচু প্রতিমা হিসেবে দাঁড়িয়ে থাকবে।

এটা স্বাভাবিক যে রেকর্ড তৈরি হয় রেকর্ড ভাঙার জন্য ! কিন্তু, নতুন রেকর্ড গড়ে, সেই রেকর্ডকে নিজেরাই ভাঙলে সেটা আরো বেশি গর্বের হয় ! ভারতবাসীদের জন্য এটা খুবই গর্বের ব্যাপার যে ভারত আবার নিজের ঐতিহ্য তৈরির দিকে নজর দিচ্ছে। স্বাধীনতার পর থেকে এই প্ৰথম ভারত নতুনভাবে জাগতে শুরু করেছে যার নেতৃত্ব করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।