Press "Enter" to skip to content

আমেরিকা সেনার বড়ো ধামাকা! ড্রোন হামলায় পাকিস্থানের ২৭০০ কট্টরপন্থী শেষ, স্বীকার করলো পাকিস্থান।

বারংবার সতর্ক করার পরও শুনতে নারাজ । এমনকি পাকিস্তানের তহবিল ফান্ডিং বন্ধ করে দেওয়ার পরেও নিজে  পাকিস্তান আফগানিস্থান থেকে ISIS  ও তালিবান এর আতঙ্কবাদীদের সাফ করতে শুরু করে দিয়েছে।
আতঙ্কবাদী সাফ করার জন্য আমেরিকা বহুবার পাকিস্থানের উপর ড্রোন হামলা করেছে। কিন্তু পাকিস্থান স্বভাবশত কোনোদিন এটা স্বীকার করতো না। স্মরণ করিয়ে দি ভারত যখন পাকিস্থানের উপর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছিল তখনও পাকিস্থান স্বীকার করেনি। কিন্তু ইতিমধ্যে পাকিস্তানের মিডিয়া ‘ডন’  এই  বিষয়ে পর্দাফাঁস করেছে। ডন জানিয়েছে পাকিস্থানের উপর লাগাতার শতাধিক ড্রোন হামলা হয়েছে যার ফলে ২৭০০ বেশি সন্ত্রাসবাদী মারা গিয়েছে

‘ডন’ এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ,আমেরিকা এখন অবধি পাকিস্থানের ওপর মোট ৪০৯ টি ড্রোন হামলায় করেছে যাতে  প্রায় ২,৭১৪জন সন্ত্রাসবাদী  মারা গেছে এবং ৭৪০ জনের বেশি আহত হয়েছে।শুক্রবারের ডনে প্রকাশিত খবরের থেকে জানা যায় পাকিস্তানের বাজাওর,হানগু,বানু,মোহাম্মদ, উত্তর বাজিরিস্থান,দক্ষিণ বাজিরিস্থান এ হামলা করা হয়েছে।

সবচেয়ে বেশি হামলা হয়েছে মধ্যে p.p.p. পার্টির শাসনকালে। এর সময়েমোট ৩৩৬ টি হামলা হয়েছে যাতে প্রায় ২২৮২ জন কট্টরপন্থী মারা গেছে।আহতের সংখ্যা ৬৫৮ এরও বেশি। জানিয়ে দি, ২০১০ সালেও কট্টরপন্থীদের উপর ১১৭ টি হামলা করা হয়েছিল যার জন্য ৭৭৫ জন সন্ত্রাসবাদী মারা গেছিল আহতের সংখ্যা ছিল ১৯৩।

আমেরিকার এই হামলায় মারা গিয়েছিল তালিবান এর প্রধান মোল্লা আখতার মনসুর। নওয়াজ শরিফের এর কার্যকালে (২০১৩-২০১৮) ৬৫ টি হামলা হয় যার জন্য ৩০১ জন কট্টরপন্থীর মৃত্যু ঘটে আহতের সংখ্যা ৭০ ।২০১৮ সালের (drone) হামলায় মারা গিয়েছিল তাহারিক -ই- পাকিস্থানের শীর্ষ নেতা। তালিবান এর শীর্ষ নেতা মুল্লা আখতার এর মৃত্যুর খবরটি পরে জানা যায়। পাক মিডিয়ার দাবি ভারতের চাপে লাগাতার এই সমস্থকিছু করছে আমেরিকা।