Press "Enter" to skip to content

রোহিঙ্গাপ্রেমীদের জন্য খারাপ খবর! অমিত শাহ বললেন…

বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি রাজস্থানের সিকারে একটি জনসভা করেন। সেই জনসভাতে গিয়ে তিনি অবৈধ অনুপ্রবেশকারীর ব্যাপারে বিজেপির প্রতিক্রিয়া স্পষ্ট করে দেন। এই দিন তিনি জানিয়ে দেন যে, সমস্ত অনুপ্রবেশকারী কে ফেরৎ পাঠানো হবে তাদের নিজভূমেতে। তারা যেখানেই লুকিয়ে থাকুক না কেন তাদের ঠিক খুঁজে বের করা হবে। এবং সমস্ত অনুপ্রবেশকারী দের তাদের নিজভূমিতে ফেরৎ যেতে হবে। ৭ জন রোহিঙ্গাকে বন্দি করে রাখা হয়েছিল শিলচরের কাছাড় কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে যেটি অসম রাজ্যে অবস্থিত। সেখানে এই রোহিঙ্গারা গত ৬ বছর ধরে বন্দি ছিল। সুপ্রিমকোর্ট বৃহস্পতিবার নির্দেশ দেন যে তাদের ফিরে যেতে হবে মায়ানমারে। ফলে ওই ৭ জনকে হস্তান্তর করে দেওয়া হয় মায়ানমার প্রশাসনের কাছে। মনে করা হচ্ছে যে, বিজেপি সরকার খানিকটা অক্সিজেন পেলেন সুপ্রিমকোর্টের এই রায়ের পরে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভারতবর্ষের জাতীয় রাজনীতি তোলপাড় হয়ে যায় অসমের N.R.C কে কেন্দ্র করে। এমনকি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসমে তার টিম পাঠান কিন্তু অসম প্রশাসন তাদের সেখানে ঢুকতে দেন নি। ফলে সেই টিম কে খালি হাতেই ফিরে আসতে হয়। এই ইস্যু নিয়ে মমতা দেখাও করেন গৃহমন্ত্রী -এর সাথে। সংসদের অধিবেশন অচল করে দেওয়া হয়। কিন্তু এত কিছুর পরও এই ইস্যু নিয়ে মোদী সরকারকে দমিয়ে রাখতে পারেন নি বিরোধীরা। অনুপ্রবেশকারীদের ব্যাপারে মোদী সরকার যে অত্যন্ত কড়া অমিত শাহ জী সেটাই স্পট করে দেন বৃহস্পতিবার।

রোহিঙ্গা - Rohinga

এই দিন রাজস্থানে অমিত জীর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শহীদ সেনা জওয়ানদের স্ত্রী এবং পরিবার। তিনি সেই অনুষ্ঠানে কংগ্রেসের সমালোচনা করে বলেন যে, পাকিস্তানকে কোনোরকম জবাব দিতে পারে নি কংগ্রেস সরকার। শুধুমাত্র অনুনয়-বিনয় করেই নিজেদের দায়িত্ব এড়িয়ে গেছে। কিন্তু কেন্দ্রে বিজেপি সরকার আসার পর থেকে সেনা জাওয়ান দের হাত খুলে দেওয়া হয়েছে। তাদের কে নির্দেশ দেওয়া আছে যে যেকোনো পরিস্থিতির মোকাবিলা যেন কড়া হাতে করে সেনা জাওয়ানরা। পাকিস্তান যদি একটা গুলি ছোড়ে তাহলে তার জবাবে ভারতীয় সেনারা যাতে ১০০ টা গুলি ছোড়েন।

অমিত শাহ - Amit Shah
অমিত শাহ –

সেই সাথে তিনি এও বলেন যে, আমরা সব সময় ভারতীয় সেনাদের পক্ষে। তারা দেশের সুরক্ষার জন্য যেটা করতে চাই আমরা তাতেই রাজি আছি। অবৈধ অনুপ্রবেশকারী ব্যাপারে অমিত জীর আরও কড়া মন্তব্য, তিনি বলেন যে শুধুমাত্র বেআইনি ভাবে ভারতে প্রবেশ করলেই কেউ ভারতের নাগরিক হয়ে যেতে পারে না। ভোটার লিস্ট থেকে সমস্ত অনুপ্রবেশকারী দের নাম বাতিল করা হবে। যদি কেউ ভাবে যে সে বেঁচে গেল তাহলে সেটা একদমই ভুল ধারনা। কাউ কেই রেহায় দেওয়া হবে না।

রোহিঙ্গা - Rohinga
রোহিঙ্গা – Rohinga

মোদী সরকার ৪০,০০০ রোহিঙ্গাকে মায়ানমারে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তারা সুপ্রিমকোর্ট কে জানিয়েছে যে, দেশের সুরক্ষার জন্যই সমস্ত রোহিঙ্গাকে তাদের নিজভূমি তে পাঠানো হবে। কেন্দ্র সরকার এও জানান যে এই সমস্ত রোহিঙ্গারা কেউ শরণার্থী নয় তারা সকলেই অবৈধ অনুপ্রবেশকারী। এরপরই সুপ্রিমকোর্ট বৃহস্পতিবার জানিয়ে দেন যে, ভারতে বন্দি ৭ জন রোহিঙ্গাকে মায়ানমারে পাঠানো হোক। এই ব্যাপারে মায়ানমার প্রশাসনের সাথে কথা বলার পর সন্ধেবেলায় সেই ৭ জন রোহিঙ্গাকে মায়ানমারের হাতে তুলে দেন অসম পুলিশ।
#অগ্নিপুত্র