Press "Enter" to skip to content

ভারতে ‘জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেব না তো কি পাকিস্তানে গিয়ে দেব? মমতা ব্যানার্জীকে আক্রমণ অমিত শাহ এর

BJP এর সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ (Amit Shah) মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুরের ঘাটালে একটি জনসভা করেন। সেখান থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর (Mamata Banerjee) উপরে আক্রমণ করে বলেন, ‘মমতা ব্যানার্জী রাজ্যের মানুষদের ‘জয় শ্রী রাম” স্লোগান দিতে দিচ্ছেন না। উনি বলেন, রাম নাম ভারতে না তো কি পাকিস্তানে গিয়ে দেবো? ঘাটাল জনসভা থেকে তিনি রাজ্যের মানুষদের কাছে রাজ্যে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য মমতা ব্যানার্জীকে উৎখাত করার ডাক দেন।

অমিত শাহ বলেন, বিজেপি এখানে ৪২ টি আসনের মধ্যে ২৩ এর থেকে বেশি আসনে জয়লাভ করবে। অমিত শাহ বলেন, ‘ভগবান রাম ভারতের সংস্কৃতির অংশ। ওনার নাম নেওয়া থেকে কি কেউ আটকাতে পারে? আমি মমতা দিদিকে জিজ্ঞাসা করতে চাই যে, প্রভু শ্রীরামের নাম ভারতে নেওয়া হবেনা তো কি পাকিস্তানে নেওয়া হবে?”

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়, যেখানে দেখা যাচ্ছে যে মমতা ব্যানার্জীর কনভয় দেখে একদল যুবক ‘জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেয়। মমতা ব্যানার্জী গাড়ি থামিয়ে তাঁদের তাড়া করেন, এমনকি তিনি বলেন যে আমাকে গালাগালি দিচ্ছে। এরপর জয় শ্রী রাম স্লোগান দেওয়ার জন্য তিন বিজেপির কর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আজ ঘাটালের সভা থেকে অমিত শাহ বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদী সরকার পাঁচ বছরে মমতা ব্যানার্জীর সরকারকে ৪,২৪,৮০০ কোটি টাকা দিয়েছে। কিন্তু ওই টাকা জনতার কাছে না গিয়ে সিন্ডিকেটে চলে যায়।”

উনি বলেন, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এর নেতৃত্বে এরাজ্যে মাত্র ১,৩২,০০০ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আমরা এরাজ্যের মানুষের উন্নয়নের জন্য প্রচুর টাকা দিয়েছি। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বলেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে এরাজ্য থেকে বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ মুসলিমদের তাড়ানো হবে। এরাজ্যেও এনআরসি চালু হবে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.