Press "Enter" to skip to content

দেশ বিরোধী কাজের জন্য বিতর্কে AMU ! মানচিত্রে জম্মুকাশ্মীরকে করা হলো ভারত থেকে আলাদা।

ভারতের খবর : AMU ( aligarh muslim university) দেশ বিরোধী কাজের জন্য আবার এলো বিতর্কে !

ফের একবার বিতর্কের জন্য শিরনামে উঠে এল আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় এর নাম। কট্টরপন্থী জিহাদীদের হাতে কিভাবে এই বিশ্ববিদ্যালয় চলে গেছে তার প্রমান আর একবার পাওয়া গেল। এবার বিতর্কের সৃস্টি হয়েছে একটি মানচিত্র কে ঘিরে। যে মানচিত্র কে ঘিরে বিতর্কের সৃস্টি হয়েছে সেখানে জম্মুকাশ্মীর কে দেখানো হয়েছে ভারতের বাইরে। অর্থাৎ জম্মুকাশ্মীর কে ভারতের সম্পত্তি নয় এটাই বোঝানো হয়েছে সেই মানচিত্রে। এই ব্যাপারটি নিয়ে চরম বিতর্কের পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রসাশন মুখ খুলেছেন। তাদের দাবি একটি সামাজিক নাটক করার জন্যই এই পোষ্টার ছাপানো হয়। এতে ভারত কে দেখানো হয়েছে একটি বিভক্ত রাষ্ট্র হিসাবে।

আমু পিও ও শফি কিডওয়াই এর সাংবাদিকরা এই ব্যাপারটি নিয়ে বলেন যে, একটি নাট্য করা হয় যেখানে ভারত কে বিভক্ত দেখানো হয়। এর ফলে যে আমাদের দেশ কে অসাম্মান করা হয়েছে সেটা স্পষ্টভাবেই বোঝা যাচ্ছে। তাই উনারা জানিয়েছেন যে, এই মানচিত্র দেখার সাথে সাথেই আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিচার ইনচার্জ কে জানায় এবং বলি যে এই ভাবে দেশের অপমান হয় এমন কিছু করা উচিৎ নয়। তাদের কে এর বিরুদ্ধে তাড়াতাড়ি কিছু ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়। ফলে বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি তাড়াতাড়ি সেই সকল পোষ্টার খুলে দেন। এবং সেই সাথে সেই দেশবিরোধী নাটক বন্ধ করার কথা বলা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে যে, রাজনীতির সাথে আমাদের এই নাটক বা পোষ্টারের কোনো যোগ নেই। কিন্তু বিতর্ক আরও বড়ো রুপ ধারন করে তখন যখন দেখা যায় যে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরের গেটেও এই পোষ্টার লাগানো রয়েছে। দেশের বড়ো বড়ো মিডিয়া জানিয়েছেন যে, খুবই খারাপ ভাবে জম্মুকাশ্মীর কে এই মানচিত্রে প্রকাশ করা হয়েছে। এই মানচিত্রে আমাদের দেশের অংশ জম্মুকাশ্মীর কে তো ভারতের বাইরে দেখানো হয়েছে সেই সাথে জম্মুকাশ্মীর কে পাকিস্তানের জমি দেখানো হয়েছে।

আর এর থেকেই মূল বিতর্কের সৃস্টি হয়েছে। “টাইমস নাউ” তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছেন যে, এখানে যে নাটকটি উপস্থাপনা করার কথা ছিল সেটা মূলত ভারত ও পাকিস্তানের সীমারেখা কে ঘিরেই করা হয়েছিল। কিন্তু সেই জন্য এইভাবে ভারতের ম্যাপ থেকে কাশ্মীর কে আলাদাভাবে দেখানো উচিৎ হয় নি। তাই আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় ফের একবার বড়ো রকমের বিতর্কের মুখে।
#অগ্নিপুত্র