Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবরঃ আবারও সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করল ভারত, গুঁড়িয়ে দেওয়া হল একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি

নতুন ভারত যে সন্ত্রাসবাদ একদমন সহ্য করবে না সেটা আগেই বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। পাকিস্তানে ঢুকে সেনা বাহিনীর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হোক। অথবা পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে এয়ার স্ট্রাইক। সব দিকেই সফল ভারতীয় সেনা।

আর এবার মায়ানমার সীমায় ঢুকে জঙ্গিদের একাধিক ঘাঁটি উড়িয়ে দিয়ে আবারও সন্ত্রাসবাদের মুখে সজোরে চর মারল ভারতীয় সেনা। ভারতীয় সেনা মায়ানমারের সাথে মিলে যৌথ অভিযানে জঙ্গি বিরোধী এই অপারেশনকে সফল করেছে এবার।

সূত্র থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, উত্তর পূর্বের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ইনফ্রাস্ট্রাকচার প্রোজেক্ট, যেটা মায়ানমারের Sittwe বন্দরের মাধ্যমে কলকাতাকে মিজোরামের সাথে যুক্ত করত। সেই এলাকা পুরোপুরি জঙ্গিদের নিশানায় ছিল।

মায়ানমারের জঙ্গি সংগঠন আরাকান আর্মি মিজোরাম সীমান্তে নতুন করে জঙ্গি আস্তানা বানিয়েছিল। তাঁদের প্রধান উদ্দেশ্য ছিল কালাদান প্রকল্পকে নিশানা বানানো। আরাকান আর্মিকে কাচিন ইন্ডিপেন্ডেন্স আর্মি দ্বারা নর্থ বর্ডার চীন পর্যন্ত প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল। সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, জঙ্গিরা অরুনাচলের পার্শবর্তী এলাকা থেকে মিজোরাম পর্যন্ত ১০০০ কিমির যাত্রা করেছিল।

পাওয়া খবর অনুযায়ী, প্রথম দফায় মিজোরামের সীমান্তে নবনির্মিত জঙ্গি শিবির ধ্বংস করার জন্য সংযুক্ত অভিযান শুরু করা হয়েছিল। অপারেশনের দ্বিতীয় দফায় NSCN (K) এর মুখ্য অফিসকে নিশানা বানিয়ে সেটিকে ধ্বংস করা হয়। তাঁর সাথে অনেক গুলো জঙ্গি ঘাঁটিও ধ্বংস করা হয়।

সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, রোহিঙ্গা জঙ্গি সংগঠন (আরাকান আর্মি) এবং নাগা জঙ্গি NSCN (K) এর বিরুদ্ধে দুই সপ্তাহ ধরে ভারত আর মায়ানমারের সেনা অভিযান চালায়। জঙ্গি সংগঠন গুলো কালাদান মাল্টি মডেল প্রোজেক্ট এর মত ভারতের কানেক্টিভিটি প্রকল্প গুলোতে হামলা করার পরিকল্পনা করছিল।

 

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.