Press "Enter" to skip to content

বিজেপি মন্ত্রী রাম মন্দিরের তৈরি করার কথা বললে, আসাউদ্দিন ওয়েসী রেগে গিয়ে যা বললেন জানলে…

উত্তরপ্রদেশের উপ মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যা অযোধ্যায় নির্মাণ নিয়ে বড়ো মন্তব্য করেছেন। উনি বলেন যদি প্রয়োজন হয় তাহলে কেন্দ্রের সরকার মন্দির নির্মাণের জন্য সাংসদে কানুন পাশ করাবে। উনি দাবি করেন নির্মাণের পথে আসা সমস্থ বাধা খুব শীঘ্রই দূর হবে। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন আসতে এখনো ৮-৯ মাস সময় রয়েছে। তাই আরো একবার ইস্যু উঠে এসেছে। কেশব প্রসাদ মিডিয়ার কাছে বলেন যদি ের নির্মাণের জন্য সমস্থ বিকল্প বিফল হয় তাহলে তাহলে সাংসদে বিল আনা ছাড়া সরকারের কাছে কোনো রাস্তা থাকবে না। দেশের শাসক ক্ষমতা নির্ধারণ করা উত্তরপ্রদেশ রাজনীতি করা এখন রকম রামমন্দির নির্মকন ইস্যুতে ঘুরপাক খাচ্ছে। এর মধ্যে উপমুখ্যমন্ত্রীর ও পূর্ব প্রদেশ সভাপতির বক্তব্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

মৌর্যা বলেন জনগণের ভরসা রয়েছে যে এই মামলায় খুব শীঘ্রই সমাধান চলে আসবে। হয় আদালত তাড়াতাড়ি সিধান্ত জানাবে নতুবা আমরা কথাবার্তার মাধ্যমে একটা ফয়সালা করবো আর যদি কোনোভাবেই রাস্তা না বের হয় তাহলে সাংসদে বিল পাশ করানো ছাড়া কোনো বিকল্প থাকবে না। উনি বলেন এলহন সাংসদে এমদের কাছে পর্যাপ্ত সংখ্যাবল নেই এটা সকল রামভক্ত ভালোভাবেই জানে। আদালত খুব তাড়াতাড়ি নিজের সিধান্ত জানিয়ে দেবে।কিন্তু যেদিন আমাদের কাছে সংখ্যাবল তথা শক্তি থাকবে সেদিন সেই শক্তির সৎব্যাবহার করা হবে দুর্ব্যবহার নয়।

মৌর্যা মিডিয়ার কাছে বলেন, যখন আমাদের কাছে দুই বিকল্প আর থাকবে না তখন আমরা তৃতীয় বিকল্পের দিকে এগোব। রাম মন্দির কোনো রাজনৈতিক চাল নয় এটা আমাদের আস্থার বিষয়। অন্যদিকে মুসলিম নেতা কেশব প্রসাদের বক্তব্য নিয়ে স্বভাববশত আলোচনা করতে শুরু করে দিয়েছেন। AIMIM এর কট্টরপন্থী নেতা বলেন একজন দায়িত্বশীল উপমুখ্যমন্ত্রীর এই রকম উগ্র ও অপ্রিয় মন্তব্য করা ঠিক নয় যখন বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টে রয়েছে।

আসাউদ্দিন ওয়েসী বলেন কেশব প্রসাদের কোনো অধিকার নেই এই ইস্যুতে কথা বলার। জানিয়ে দি যে আসাউদ্দিন ওয়েসী তিন তালাক ইস্যুতে বলেছিলেন এটা মুসলিমদের নিজেরদের ব্যাপার কোর্টের নাক গোলানো উচিত নয় সেই আসাউদ্দিন ওয়েসী এখন কোর্টের দোহাই দিয়ে রাম মন্দির ইস্যুতে হিন্দুদের চুপ থাকতে বলছেন।