Press "Enter" to skip to content

ইসলামিক শ্লোগান না দেওয়ায়, চাকু দিয়ে মারা হলো দুই হিন্দু যুবককে!

রাঁচি থেকে এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা সামনে এসেছে। যদিও বেশিরভাগ মিডিয়া খবরটিকে গোপন করার চেষ্টায় নেমে পড়েছে। রাঁচিতে দুজন হিন্দু যুবককে চাকু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তাবরেজ আনসারীর ইস্যুতে  কট্টরপন্থীরা বেশ কিছুদিন ধরে দেশজুড়ে উৎপাত শুরু করেছে। রাঁচিতেও এখন কট্টরপন্থীদের উৎপাতের খবর সামনে আসছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, ২ হিন্দু যুবককে ঘিরে প্রথমে তাদের ধর্ম জিজ্ঞাসা করে। হিন্দু যুবকরা উত্তরে বলে যে তারা হিন্দু। এরপর উন্মাদীরা তাবরেজ আনসারীর ভিডিও হিন্দু যুবক দুটিকে দেখায়।

তৎপর হিন্দু যুবকদের বলা হয়, তোরাও এখানে চুরি করতে এসেছিস এবং ইসলামিক শ্লোগান দে। কিন্তু দুই যুবক ইসলামিক শ্লোগান দিতে অস্বীকার করায়, উন্মাদীরা চাকু দিয়ে হামলা করে। দুই হিন্দু যুবকের নাম শেখর ও বসন্তরাম। ঘটনাটি রাঁচির আরোগডা থানার হামুর ফলমাণ্ডির কাছে ঘটিত হয়েছে। ফলমাণ্ডির পেছন দিকে উন্মাদী কট্টরপন্থীরা দুই হিন্দু যুবককে ধরে আক্রমন করে।

উন্মাদীরা শেখর ও বসন্তরামের উপর ধারালো চাকু দিয়ে আক্রমন করে। এর ফলে একজনের হাতে গুরুতর আঘাত লেগেছে তো অন্যজনের গলায় আঘাত লেগেছে। দুজেনেই এখন চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। দুজনের অবস্থা গম্ভীর এবং সুস্থ হতে অনেকে সময় লাগতে পারে বলে জানা গেছে। দুজনেই পুলিশকে ঘটনার বিবৃতি দিয়েছে কিন্ত পুলিশ এখন অবধি কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। পুলিশ অপরাধীদের খোঁজ চালাচ্ছে।