Press "Enter" to skip to content

আদালতের সিদ্ধান্তকে মানছে না সুন্নি বোর্ড, রামলালার পক্ষে আসা সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানাবে মুসলিম পক্ষ

নয়া দিল্লীঃ ৪৯০ বছর ধরে অযোধ্যা নিয়ে বিতর্ক চলেই যাচ্ছে। আর এত বছর পর বহু প্রতীক্ষিত মামলার সিদ্ধান্ত আসে। সকাল ১০ঃ৩০ থেকে সুপ্রিম কোর্ট অযোধ্যা সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত শোনানোর সময় বলা হচ্ছে,  ASI প্রমাণ করতে পারেনি যে, সেখানে মন্দির ছিল আরেকটি বড় খবর হল, শুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের দাবি খারিজ, বাবরি মসজিদের নীচে যা পাওয়া গেছিল সেটা ইসলামিক ছিল না জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের কথা অনুযায়ী, বাবরি মসজিদের নিজের খননে যা পাওয়া গেছিল, সেটা অনেক বড় রচনা ছিল আর সেটি ইসলামিক না।

সুপ্রিম কোর্ট জানায়, ১৮৫৬-৫৭ সালের আগে বিতর্কিত জমিতে নিয়মত নামাজ পড়ার কোন প্রমাণ নেই। ১৮৫৬ সালের আগে হিন্দুরাও ওই খানে পূজা করত। বাধা আসার পর হিন্দুরা বাইরে পূজা করতে বাধ্য হয়। ১৯৩৪ সালের দাঙ্গার পর মুসলিমদের কবজা ছিলনা আর ওখানে। পুরাতত্ত্ববিদের প্রমাণ হিন্দুদের পক্ষে। শুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে বৈকল্পিক জমি দেওয়ার কথা বলল সুপ্রিম কোর্ট। বিতর্কিত জমির রাম লালার জানালো সুপ্রিম কোর্ট ।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তথা মুসলিম পক্ষের আইনজীবী Zafaryab Jilani জানিয়েছেন তাঁরা এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না। ভবিষ্যতে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত নিয়ে তাঁরা আবার আদালতের দরজায় কড়া নাড়তে পারে।

you're currently offline