Press "Enter" to skip to content

পাক সেনা বেলুচিস্তান থেকে ভারতের দিকে ঘুরে যাওয়ায়, বালোচরা দখল করে নিল পাকিস্থানের পোস্ট ক্যাম্প।

পুলবামা হামলার পর অনেকে ভেবেছিল যে মোদী শুধু পাকিস্থানকে আর্থিক ও কূটনৈতিকদিক থেকেই চাপ দেব। তখন আমরা পাঠকদের বার বার জানিয়ে ছিলাম যে ভারত একটা স্ট্রাইক করবে। আর এখন ভারত ও পাকিস্থানের যা পরিস্থিতি তাতে ভারত একটা ফাইনাল স্ট্রাইক দেবে এটাও নিশ্চিত। কারণ ভারত পাকিস্থানের আতঙ্কবাদী ক্যাম্পে এয়ার স্ট্রাইক করেছিল কিন্তু পাকিস্থান উল্টে ভারতের সেনার উপর হামলা করার চেষ্টা করেছিল। এখন ভারত সেই আক্রমনের জবাব দেবেই। আর এই ফাইনাল স্ট্রাইক থেকে বাঁচার জন্যেই পাকিস্থান কামান্ডোর অভিনন্দনকে ফিরিয়ে শান্তি দূত সাজার নাটক কষেছে।

তবে পাকিস্থান যতই বাঁচার চেষ্টা করুক না কেন, পাকিস্থানকে টুকরো টুকরো করার কাজ শুরু হয়ে গেছে। পাকিস্থানের সরকার আজ ভারতের সামনে হাঁটু গেড়ে দিয়েছে। আর এটা এমনি এমনি হয়নি, মোদী পাকিস্থানের শ্বাসপ্রশাস বন্ধ করে দিয়েছে। পাকিস্থানের এয়ার ট্রাফিক, জল ট্রাফিক সমস্থকিছু বন্ধ হয়ে গেছে। পাকিস্থানের বাণিজ্যনগরী করাচি বন্ধ হয়ে গেছে।

পাকিস্থানের সেনার অবস্থা আরো খারাপ। পাকিস্থানের ৭০% সৈনিক বেলুচিস্তানে নিযুক্ত থাকে, কারণ সেখানে বালোচরা লাগাতার পাকিস্থানের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ চালায় আলাদা দেশ করার জন্য। কিন্তু এখন ভারত সরকার পাকিস্থানের বিরুদ্ধে কার্যবাহী শুরু করতেই পাকিস্থানের সেনা বেলুচিস্তানের সীমা ছেড়ে ভারতের সীমান্তে প্রবেশ করেছে। যার পুরো লাভ বালোচরা উঠিয়ে নিয়েছে এবং পাকিস্থানের সেনার পোস্টগুলি কবজা করে নিয়েছে।

এখন পাকিস্থানের সেনা দু-দিক থেকে ফেঁসে রয়েছে। ভারতের বিরুদ্ধে জিহাদ করবে নাকি নিজের এলাকাকে সামলে রাখবে তাই নিয়ে চিন্তায় পড়েছে পাকিস্থান। এবার পাকিস্থান আবার নিজের কিছু সেনাকে বেলুচিস্তানের দিকে মুড়তে বলেছে। ভারতের সীমান্তে মোদী পাক সেনাকে ব্যাস্ত রেখেছে তো অন্যদিকে বালোচ এলাকায় পাকিস্থানের পোস্টগুলি কবজা করে নেওয়া হয়েছে। বালোচরা নিজের স্বার্থের জন্য হলেও ভারতকে ব্যাপকভাবে সমর্থন দিচ্ছে। বালোচরা ভারতীয়দের কাছে অনুরোধ করেছে ভারত যেন এবার থেমে না যায় এবং একটা ফাইনাল স্ট্রাইক দিয়ে পাকিস্থানের ভূগোল বদলে দেয়।

10 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.