Press "Enter" to skip to content

BEAKING: চীনের বিরুদ্ধে সবথেকে বড় পদক্ষেপ নিয়ে সংসদে বিল পাশ করালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প! মাথায় হাত জিনপিং এর


নয়া দিল্লীঃ আমেরিকার রাষ্ট্রপতি () ে () উইঘুর মুসলিমদের () উপর হওয়া অত্যাচারের বিরুদ্ধে বিল পাশ করালেন। আমেরিকার এই পদক্ষেপে ের সংশয় আরও বেড়ে উঠলো। আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প উইঘুর এবং অন্যান্য সংখ্যালঘুদের উপর চালানো অত্যাচারের জন্য চীনকে শাস্তি দেওয়ার প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছেন।

ওই প্রস্তাবে পশ্চিম শিনজিয়াং প্রান্তে উইঘুর আর অন্যান্য সংখ্যালঘুদের উপর নজরদারি চালানো এবং তাদের গ্রেফতার করার জন্য চীনের আধিকারিকদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার কথা উল্লেখ আছে। চীনে এক লক্ষের বেশি মানুষ খুব বাজে পরিস্থিতিতে গ্রেফতার হয়ে আছে। আর চীনের এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে অন্য দেশ দ্বারা নেওয়া সবথেকে বড় পদক্ষেপ আমেরিকার তরফ থেকে নেওয়া হল।

ইউএস কংগ্রেস এই প্রস্তাব পাশ করিয়েছে আর বুধবার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছেন। আমেরিকার এই পদক্ষেপের পর চীনের সাথে আগে থেকেই খারাপ হওয়া সম্পর্ক আরও খারাপ হতে চলেছে। এই পাশ হওয়ার পর এবার চীনও এটা নিয়ে বয়ানবাজি শুরু করে দিয়েছে। সংবাদসংস্থা AFP ট্যুইট করে জানিয়েছে যে, বেজিং বলেছে উইঘুর বিল পাশ করা চীনের উপর হামলা আর এর পরিণাম ভুগতে হবে আমেরিকাকে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

রিপোর্ট অনুযায়ী, শোনা যাচ্ছে যে চীনের বিরুদ্ধে নেওয়া আমেরিকার এই পদক্ষেপ অনেক বড়। ট্রাম্প একটি বয়ান জারি করে বলছেন, ২০২০ উইঘুর মানবাধিকার নীতি আইন ‘মানবাধিকার লঙ্ঘের অপরাধী”দের দোষী সাব্যস্ত করা হবে। উইঘুরের অধিকারের লড়াই লড়া আইনজীবী ন্যরি টার্কেল সোশ্যাল মিডিয়ায় রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ধন্যবাদ জানিয়ে লেখেন, ‘এত আমেরিকা আর উইঘুরদের জন্য একটি মহান দিন।”