Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী মোদীজির আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প বাংলায় বন্ধ করতে চলেছে রাজ্য সরকার !

দেশে মোদী সরকার আসার পর জনকল্যাণমূলক অনেক প্রকল্পের উদ্ধোধন করেছেন। মোদীজির প্রকল্প গুলির মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হল “আয়ুষ্মান ভারত।” এই “আয়ুষ্মান ভারত” হল বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্বাস্থ্য প্রকল্প। আর এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করার জন্য দেশ বিদেশের নানান মহল থেকে শুভেচ্ছাবার্তা পেয়েছে মোদী সরকার। অনেকে প্রশংসা করেছেন মোদীজির নেতৃত্বের।চারিদিকে যখন এই প্রকল্পের জন্য ভারতবর্ষ একটা আলাদা মান পেয়েছেন। তখন আমাদের রাজ্য সরকার পশ্চিমবঙ্গে “আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প” বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিলেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই প্রকল্প বন্ধ করার ইঙ্গিত দিয়ে জানান যে, এই প্রকল্প চালানার জন্য রাজ্য সরকার এক পয়সা দেবে না। কেন্দ্র এই প্রকল্পটি সম্পূর্ণ ভাবে নিজের টাকায় চালাক।কেন্দ্র সরকার দেশের গরিব মানুষদের বিনা পয়সায় চিকিৎসা দেওয়ার জন্য দেশের প্রতিটি রাজ্যে এই প্রকল্প চালু করেন।

 

এই প্রকল্প চালনার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত নেন যে এই প্রকল্পের জন্য কেন্দ্র সরকার দেবে ৬০ শতাংশ আর বাকি মাত্র ৪০ শতাংশ দেবে রাজ্য সরকার। কিন্তু হটাৎই এইদিন পশ্চিমবঙ্গ সরকার সিদ্ধান্ত নেন যে আর কোনো টাকা রাজ্য সরকারের তরফে দেওয়া হবে না এই প্রকল্প পরিচালনা করবার জন্য। তবে বিষেজ্ঞরা এর পিছনে দেখছে এক অন্য যুক্তি। তাদের মতে এটা পুরোপুরি ভাবে একটা রাজনৈতিক স্বার্থ মমতার। কারণ সেই জন্য লোকসভা নির্বাচনের আগে কেন্দ্রীয় প্রকল্প গুলি বন্ধ করার চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার।রাজ্য সরকার বিভিন্নভাবে চালাকি করে অনেক কেন্দ্রীয় প্রকল্প কে নিজেদের নামে চালনা করছেন। কিন্তু এই নিয়ে স্যোশাল মিডিয়ায় বহু ক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছে রাজ্য সরকারকে।তাই তারা বিভিন্ন চেষ্টা করেও কেন্দ্রীয় সরকারের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পকে নিজেদের নামে পরিচালনা করতে পারে নি।রাজ্য সরকার অনেকবার কেন্দ্রের কাছে আবেদন করেছে যাতে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প কে এই রাজ্যে আলাদা নামে মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া যায়। কিন্তু রাজ্য সরকারের এই চালাকিতে কেন্দ্র সম্মতি দেয় নি !

অবশেষে নিজেদের স্বার্থে এই প্রকল্প রাজ্যে বন্ধ করে দেওয়ার চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার।আর সবচেয়ে বড় ব্যাপার এটাই যে এই প্রথমবারের জন্য কোনো কেন্দ্র সরকার গরিবদের চিকিৎসায় খরচ হিসাবে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত দিচ্ছে। আর এর ফলে রাজ্য সরকারের একটা ভয় ঢুকে গিয়েছে। রাজ্য সরকার ভাবছে যে, রাজ্যবাসী যদি এই সমস্ত প্রকল্প গুলির সুবিধা পায় তাহলে লোকসভা নির্বাচনের বিজেপির ভোট সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। আর সেটা কোনো ভাবেই মেনে নিতে পারছে না তৃণমূল কংগ্রেস। তাই রাজ্যবাসী কে এই সমস্ত প্রকল্পের সুবিধা থেকে বঞ্চিত করবার জন্য রাজ্য সরকার আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পটি বন্ধ করে দিতে চাইছে।

যাতে রাজ্যের মানুষ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয় এবং রাজ্য সরকার সেই ফায়দা তুলতে পারে।বিভিন্ন ধরনের বড় অসুখের চিকিৎসায় প্রচুর পরিমানে অর্থ খরচ হয়। তাই দেশের গরিব মানুষজন সেই সমস্ত ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে পারতেন না। অনেক সময় চিকিৎসার খরচ বহন করতে তাদের বাড়ি-ঘর, জমিজমা বিক্রি করতে হত। কিন্তু মোদী সরকার দেশের গরিব মানুষের কথা ভেবে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালু করেন। এই প্রকল্পের মাধ্যমে গরিবদের চিকিৎসার ব্যায় বহন করত কেন্দ্রীয় সরকার।

কিন্তু শুধুমাত্র নিজেদের স্বার্থে, নিজেদের ভোটের কথা ভেবে রাজ্য সরকার যেরূপ মনোভাব দেখাচ্ছে এতে এটাই স্পষ্ট যে, পশ্চিমবঙ্গের গরিব মানুষ কেন্দ্র সরকারের এই সমস্ত প্রকল্পের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।
#অগ্নিপুত্র

Be First to Comment

Leave a Reply