Press "Enter" to skip to content

এক হাজারটি প্রদীপ জ্বালিয়ে প্রাক্তন বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানালেন ভূটানের রাজা

বিজেপির বরিষ্ঠ নেত্রী তথা প্রাক্তন মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ মঙ্গলবার রাতে প্রয়াত হন। বুকে ব্যাথা নিয়ে উনি দিল্লীর এইমস এ ভর্তি হয়েছিলেন। উনি অনেক সময় ধরে শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুর সময় ওনার বয়স ছিল ৬৭ বছর। বিজেপির নেতা তথা নিতিন গডকড়ী এবং দিল্লী বিজেপির নেতা হর্ষবর্ধন ওনাকে দেখার জন্য এইমসে গেছিলেন। মৃত্যুর ঘণ্টা তিনেক আগে উনি শেষ ট্যুইট করেছিলেন। ওই ট্যুইটে উনি কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা উঠিয়ে নেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানান। উনি লিখেছিলেন, ‘আমি আমার জীবনে এই দিনটা দেখার জন্য অপেক্ষা করছিলাম।”

সুষমা স্বরাজের মৃত্যুর পর গোটা দেশে শোকের ছায়া নেমে এসেছিল। ভারতের সমস্ত রাজনৈতিক নেতা, নেত্রীরা ওনাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। শুধু দেশের না, বিদেশের নেতা নেত্রীরাও ওনাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সুষমা স্বরাজকে চোখের জল ফেলে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

ভূটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক ভারতের প্রাক্তন বিদেশ মন্ত্রী তথা বিজেপির বরিষ্ঠ নেত্রী সুষমা স্বরাজকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতে এক হাজারটি প্রদীপ জ্বালান এবং ওনার বেদেহি আত্মার শান্তি কামনা করেন। মিডিয়া রিপোর্টস অনুযায়ী, বুধবার ের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক ভারতের প্রাক্তন বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজের জন্য এই বিশেষ স্মরণ সভার আয়োজন করেছিলেন।

ভূটানের দৈনিক সংবাদ মাধ্যম এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ভূটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক সুষমা স্বরাজের পরিবারের জন্য শোক বার্তাও পাঠিয়েছেন। ২০১৪ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত ভারতের বিদেশ মন্ত্রী থাকা সুষমা স্বরাজের মৃত্যু এই সপ্তাহের মঙ্গলবার হয়েছিল। ভূটানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে বুধবার নয়া দিল্লীতে সুষমা স্বরাজের শেষকৃত্যে অংশ নিয়েছিলেন।