Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবর: আধিকারিক ঘোষণা মাত্র বাকি, 35A এবং 370 ধারা শেষ, জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সক্রিয় ভূমিকায়!

শুধু 35A নয় বরং কেও মুছে ফেলার পস্তুতি নিয়ে ফেলা হয়েছে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বাকি রয়ে গেছে। সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, নরেন্দ্র মোদীর সরকার এবং 35A শেষ করার নির্ণয় করে ফেলেছে। যার আধিকারিক ঘোষণা সরকার যে কোনো সময় করতে পারে। এর জন্য সরকার সমস্থ রকম পস্তুতি নিচ্ছে। একবার সমস্তরকম ইস্যু নিশ্চিত হলেই আধিকারিক ঘোষণা করে দেওয়া হবে বলে সূত্রের খবর।

মামলা খুবই সংবেদনশীল, এর জন্য কেন্দ্র সরকার কাশ্মীরে বহু সংখ্যায় সুরক্ষাকর্মী নিযুক্ত করেছে। একইসাথে জম্মুকাশ্মীরের রাজ্যপালও সক্রিয় রয়েছেন। সরকার যে কোনো মুহূর্তে এই ইস্যুতে বড় ঘোষণা করতে পারে। মামলা সংবেদনশীল হওয়ায় এই ইস্যুতে জম্মুকাশ্মীরে ল এন্ড অর্ডার সিচুয়েশন এ সমস্যা হতে পারে। সরকার এর জন্য সমস্ত দিকে নজর রেখে সঠিক সময়ের অপেক্ষায় রয়েছে।

কাশ্মীরের নেতারা বিষয়টির আভাস আগেই পেয়েছেন যার জন্য তারা খোলাখুলি ভারত সরকারকে হুমকি দিতে শুরু করেছে। সকাল থেকে দুজন কংগ্রেস নেতা এবং তারপর কাশ্মীরের নেতারা একের পর এক ভারত সরকারকে এই ইস্যুতে হুমকি দিয়েই চলেছে। এর কারণ তাদের কান পর্যন্ত এই ইস্যুতে খবর আগেই পৌঁছেছিল।

খবর এখন মিডিয়াতেও আসতে শুরু হয়েছে। মিডিয়াতে খবর আসতে শুরু হয়েছে তার ছবিও ওপরে দেওয়া হয়েছে। মিডিয়ার দাবি খুব শীঘ্রই সরকার এই ইস্যুতে ঘোষণা করে দেব। এখন সময়ের অপেক্ষা, যদিও মিডিয়া এই ইস্যুতে কতটা সত্যতা যাচাই করেছে তা কিছু সময়ের মধ্যে বোঝা যাবে। মোদী সরকার আগে থেকেই এর পস্তুতি শুরু করেছিল এবং অনেক কাশ্মীরি কট্টরপন্থী নেতাকে গ্রেপ্তার করে কাশ্মীরের বাইরে নাগাল্যান্ড, মণিপুরের জেলে ঢুকিয়ে দিয়েছিল। এখন দেশের কাছে পুরো বিষয় স্পষ্ট। কংগ্রেস দেশকে ধারা 370 ও 35A দিয়ে অভিশাপ লাগিয়ে গেছিল এবং মোদী দেশকে এই অভিশাপ থেকে মুক্ত করতে চলেছেন। যে কোনো মুহূর্তের মধ্যে সরকার আধিকারিক ঘোষণা করতে পারে এবং নতুন ইতিহাস গড়ে তুলতে পারে।

6 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.