Press "Enter" to skip to content

বড়ো খবর: আরো কমলো পেট্রোল ডিজেলের মূল্য! মোদী সরকারের পদক্ষেপে আরো নীচে নামবে মূল্য।

কয়েক সপ্তাহ আগে ের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে দেশজুড়ে উৎপাত শুরু করেছিল কংগ্রেস, বিক্রীত মিডিয়া। কিছু কিছু সাংবাদিক পেট্রোল ও ের মুল্য বৃদ্ধি নিয়ে পেট্রোল পাম্পে জনগণকে মানুষের বিরুদ্ধে উস্কানি দিতে লেগে পড়েছিল। তবে সরকারের আশ্বাস মতো এখন লাগাতার কমে চলেছে পেট্রোল, ের মূল্য। রবিবার দিন পেট্রোল ও ের দামে বেশ বড়ো রকমের কমতি এসেছে। পেট্রোল ের নতুন মূল্য সকাল ৬ টা থেকে লাগু হয়। পেট্রোলের দামে ২১ পয়সা প্রতি লিটার এবং ডিজলের দামে ১৯ পয়সা প্রতি লিটার কমতি এসেছে। চেন্নাইতে পেট্রলের দামে ২১ পয়সা প্রতি লিটার, কলকাতায় ২০ পয়সা প্রতি লিটার, মুম্বাইতে ২০ পয়সা প্রতি লিটার এবং দিল্লীতে ২০ পয়সা প্রতি লিটার কমতি এসেছে।

রবিবার দিন চেন্নাইতে ১ লিটার পেট্রলের মূল্য ৭২.৭০ টাকা, কলকাতায় ৭২.১৬ টাকা, দিল্লীযে ৭০.৭ টাকা, মুম্বাইতে ৭৫.৬৯ টাকা। অন্যদিকে চেন্নাইতে ১ লিটার ডিজেলের মূল্যে ১৯ পয়সা, দিল্লীতে ১৮ পয়সা, কলকাতায় ১৮ পয়সা, মুম্বাইতে ১৮ পয়সা কমেছে। রবিবার দিন চেন্নাইতে ১ লিটার ডিজেলের দাম ৬৭.৫৮ টাকা, কোলকাতায় ৬৫.৭৭ টাকা, দিল্লীতে ৬৪.০১ টাকা এবং মুম্বাইতে ৬৬.৯৮ টাকা। জানিয়ে দি, পেট্রোল ডিজেলের মূল্য আন্তর্জাতিক স্তরে ডলার-রুপির এক্সচেঞ্জ ও ক্রুড অয়েলের উপর নির্ভর করে।

ভারত নিজের প্রয়োজনীয় ৮০% পেট্রোলিয়াম আমদানি করে। অক্টোবর ২০১৭ থেকে পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্য ৩০% কমিয়ে আনা হয়েছে। এর মুখ্য কারণ এই যে সাপ্লাই বেশি ও ডিমান্ড কম হয়ে গেছে। তবে এখন উৎপাদনকারী দেশগুলি কম উৎপাদন করার সিধান্ত নিয়েছে। গ্লোবাল ডিমান্ডকে মাথায় রেখে উৎপাদন রোজ ১.২ মিলিয়ন ব্যারেল কম রাখার সিধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এদিকে ভারতের সরকার ভবিষ্যতে তেলের উপর নির্ভরতা কমানোর জন্য নেমেছে। সরকার গাড়ি উৎপাদনকারী সংস্থাগুলিকে ২০৩০ সালের মধ্যে কাঠামো পরিবর্তন করার নির্দেশ দিয়েছে। একইসাথে পেট্রোল ডিজেলের সাথে ইথানল ও মিথানল মিশ্রিত করে মূল্য নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে।

5 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.