পাকিস্থানের হুমকিতে বিপিন রাওয়াতের কড়া জবাব- আমরা ধমকি দেব না, বেশি কথাও বলবো না, সোজা ঢুকে…

পাকিস্থান একটা আতঙ্কবাদী দেশ, বিগত দিনে পাকিস্থান ভারতকে যুদ্ধের জন্য হুমকি দিয়েছে। নিজের বড়াই করে পাকিস্থান ঘোষণা করেছে যে তারা পরমাণু শক্তি সম্পন্ন দেশ। জানিয়ে দি, পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান লাগাতার কয়েক সপ্তাহ থেকে ভারতের সাথে বার্তা করার জন্য অনুরোধ করছিল। কিন্তু মোদী সাফ জানিয়ে দেয়, পাকিস্থানের সাথে কোনো বার্তা হবে না। এটা বেশ ভলোরকম সম্মানে লাগে ইমরান খানের। কারণ আন্তর্জাতিক মহলে এটা অপমান ছাড়া কিছু নয়। তাই ইমরান খান মোদীকে গালি দিতে শুরু করে এবং শেষপর্যন্ত পাকিস্থানের সেনা ভারতকে যুদ্ধের হুমকি দেয়।

পাকিস্থানের সেনা প্রমুখ ভারতকে হুমকি দিয়ে বলে, আমরা পরমাণু শক্তি সম্পন্ন দেশ। যদিও পাকিস্থান এই রকম বোরিং হুমকি মাঝে মধ্যেই ভারতকে দিয়ে থাকে, এটা কোনো নতুন ব্যাপার নয় যার কোনো প্রভাব ভারতের উপর পড়ে না। তবে গতকাল স্থল সেনা প্রমুখ বিপিন রাওয়াত পাকিস্থানকে কড়া ভাষায় একটা জবাব দিয়েছেন। রাওয়াত পাকিস্থানের হুমকির উপর বলেন, আমরা ধমকি দি না, আমরা যুদ্ধের কথাও বলি না, আমরা যুদ্ধ নিয়ে গুনগান গাই না, সরকারের থেকে আমরা নির্দেশ পেলে আমরা সরাসরি যুদ্ধ করি, আমরা সোজা ঢুকে পড়ি।

জেনারেল রাওয়াত বলেন, যুদ্ধ ঢাক ঢোল পিটিয়ে হয়না, আমরা চিৎকারও করি না আর যুদ্ধের ধমকিও দি না। যুদ্ধ করার হলে আমরা সোজাসুজি যুদ্ধ করি বেশি কথা বলি না। পাকিস্থান ও তাদের সেনাকে আজ বিপিন রাওয়াত সরাসরি জবাব দেন যে আমরা পাকিস্থানীদের মতো মুখ চালাবার লোক নয়, আমরা যুদ্ধ করার লোক। আর আমরা যুদ্ধের আগে ঢাকঢোল পিটিয়ে গুনগান করি না বরং সরাসরি যুদ্ধ করি। জানিয়ে দি, পাকিস্থানের সেনা এতটাই কাপুরুষ যে বহুবার মার খেয়েছে , ইসলামের নামে দেশভাগের পর যতবার যুদ্ধ করেছে ততবার ভারতের কাছে হেরেছে।

একবার তো পাকিস্থানের ৯৭ হাজার সৈনিকে থুতু পর্যন্ত চাটতে বাধ্য করেছিল ভারতের সেনা তারপরেও শিক্ষা হয়নি। এখন ইসলামের নাম সাম্রাজ্য বিস্তার ও ভারতকে ইসলামিক দেশ করার স্বপ্নে ভারতে আতঙ্কবাদী প্রেরণ করে। এরপর যখন ভারতের বীর সেনারা আতঙ্কবাদী, জঙ্গিদের জাহান্নামে পাঠায় তখন যুদ্ধের হুমকি দিয়ে নিজেদের কাপুরুষতা ঢাকবার চেষ্টা করে।

you're currently offline

Open

Close