এবার তৃণমূলের ঘাঁটিতেই তৃণমূলকে ছেঁটেফেলে এই জেলায় গ্রামপঞ্চায়েত দখল করলো বিজেপি।

এইবার পঞ্চায়েত ভোট ছিল বাংলার মানুষের কাছে দুঃসপ্ন। এই পঞ্চায়েত ভোট কে ঘিরে পুরো রাজ্যজুড়ে চলেছে সন্ত্রাস। তৃনমূলের গুন্ডাবাহিনীর দারা আক্রমণ হতে হয়েছে রাজ্যের বিরোধী দলের সদস্যদের। চারিদিকে শুধু খুন, রক্তারক্তি ছাড়া আর কিছু ছিল না। রাজ্যের শাসক দল অর্থাৎ তৃনমূলের বিরুদ্ধে উঠেছে বিরোধীদের নমিনেশন জমা দিতে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ। কিন্তু এতকিছু করেও কিছু কিছু জায়গায় তৃনমূলের শেষ রক্ষা হয় নি। এবার প্রথমবারের জন্য কোনো পঞ্চায়েত দখল করল বিজেপি। আর সেটা হল বীরভূমে। বীরভূমের বিজেপির দখলে এল মল্লারপুর ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত, সোমবারই এই খবর সবার সামনে আসে। বিজেপি সেখানে মহিলা সংরক্ষিত একটি আসনে বাজিমাত করে। দেখানে প্রধান হিসাবে নির্বাচিত হন তনুশ্রী লেট। এবং সমির লোহার হয়েছেন উপপ্রধান।

এবার রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি সন্ত্রাসবাদী ঘটনা ঘটেছিল এই বীরভূম জেলায়। রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ উঠে যে, তারা বিরোধীদের নমিনেশন জমা দিতে দিচ্ছে না। বেশিরভাগ জায়গায় শাসক দলের দাড়া নানাভাবে অত্যাচারিত হতে হয়েছে রাজ্যের অন্যান্য দল গুলিকে। অনেকাংশ ক্ষেত্রে বিরোধীরা প্রার্থী দিতে না পারলেও ময়ূরেশ্বর ১ নম্বর ব্লকে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল বিজেপি। সেখানে সব আসনে প্রার্থী দিয়েছিল বিজেপি।

এবং বিজেপি দাবি করে যে, পঞ্চায়েত ভোটের সময় মল্লারপুর ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নিতে পারে নি তৃনমূল আশ্রিত গুন্ডাবাহিনী। সেখানে ১৩ টি আসনে ভোট হয়েছিল। তার মধ্যে তৃনমূল দখল করেন ৪ টি আসন অপরদিকে বিজেপির দখলে আসে ৯ টি আসন। সোমবার দুপুরে ওই পঞ্চায়েত বোর্ডটি গঠন করা হয়। যদিও তৃনমূলের চারজন সদস্য সেই ভোটাভোটি অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন। তারপর তনুশ্রী লেট কে প্রধান হিসাবে নিযুক্ত করা হয়।

জয় শঙ্কর সিনহা যিনি বিজেপির ময়ূরেশ্বর ১ নম্বর ব্লক সহ-সভাপতি তিনি বলেন যে, অনেক সংগ্রাম করে আমরা এই প্রথমবারের জন্য পঞ্চায়েত দখল করেছি। এখানকার মানুষ আমাদের পাশে আছেন। তাদের বিপুল পরিমান সমর্থন পেয়েই আমরা এখানে জয়ী হয়েছি। তারপর নবনির্বাচিত প্রধান তনুশ্রী লেট বলেন যে, “সাধারণ মানুষের পাশে সবসময় থাকবো। মানুষের হয়ে কাজ করে যাব আজীবন। সমস্ত সুখ দুঃখে মানুষের দিকে হাত বাড়িয়ে দেব। সমস্ত প্রতিকূলতাতে হাতে হাত মিলিয়ে লড়াই করব।
#অগ্নিপুত্র

you're currently offline

Open

Close