Press "Enter" to skip to content

আবার হাইকোর্টে মুখ পুড়লো মুখ্যমন্ত্রী মমতার ! রাজ্যের নির্দেশ খারিজ করে হাইকোর্ট অনুমতি দিলো বিজেপির রথযাত্রার !

সত্যের জয় নিশ্চিত! সরকারের রায় খারিজ করে বিজেপিকে রথ যাত্রার অনুমতি দিলো হাইকোর্ট। বিচারপতি তপব্রত সিঙ্গেল বেঞ্চ রাজ্য সরকারের রায়কে খারিজ করে রথযাত্রার অনুমতি প্রদান করেছে। গোয়েন্দা রিপোর্টের দোহাই দিয়ে রথযাত্রা আটকে দেওয়ার প্রয়াস করেছিল মমতা ব্যানার্জীর সরকার। কিন্তু আদালত তৃণমূল সরকারের মুখে ঝামা ঘষে গণতন্তের রক্ষা করেছে। তবে আদালত রথ যাত্রার জন্য বেশকিছু নিয়ম বিজেপির সামনে রেখে দিয়েছে। শর্ত অনুযায়ী, যে এলাকা থেকে রথ বের হবে সেই এলাকার প্রশাসনকে ১২ ঘন্টা আগে থেকে খবর দিয়ে দিতে হবে।

আদালত তৃণমূল সরকারের মুখের উপর ঝামা ঘষে বলেন, শুধুমাত্র কোচবিহারের ঘটনা দেখে রথযাত্রা আটকে দেওয়া যায় না। সকালবেলা নিয়ে আদালতে যুক্তি তর্ক শুরু হলে বিজেপির আইনজীবী বলেন, পুলিশ প্রশাসন কোন যুক্তিতে রথযাত্রা আটকে দিয়েছে তার যুক্তিযোগ্য কোনো কারণ তারা দেখায়নি।

তৃণমূলের দাবি রথ যাত্রার মাধ্যমে পার্টি, তৃণমূলকে সাম্প্রদায়িক ও হিন্দু বিরোধী প্রমান করার চেষ্টা করছে। যদিও সেটা রথ যাত্রা আটকানোর কারণ হিসেবে বলা যেতে পারে না। আদালতের এই রায়ে খুশির মহল বিজেপির অন্দরমহলে। দাবি করেছিল যে তাদের দলের উত্থান দেখে তৃণমূল ভয় পেয়েছে।

কিছুদিন আগেই বিজেপির বড়ো নেতা মুকুল রায় নবান্নে গিয়ে রথযাত্রার জন্য অনুমতি চাইতে গেছিলেন। কিন্তু সেখানেও হতাশার সম্মুখীন হতে হয় , তবে শেষপর্যন্ত সত্যের জয় হলো এবং বিজেপিকে রথ যাত্রার অনুমতি দিল হাইকোর্ট। বিজেপি সমর্থকরাও এই ইস্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ও পার্টি অফিসে উৎযাপন করে খুশি ব্যাক্ত করেছে।

11 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.