রাজস্থান নির্বাচনের জন্য অমিত শাহ প্রয়োগ করতে চলেছেন ব্রহ্মাস্ত্র! হেরে যাওয়া বাজি জিততে চলেছে বিজেপি।

৫ রাজ্যের নির্বাচন নিয়ে এখন লাগাতার আপডেট মানুষের কাছে আসছে। ৫ রাজ্যের নির্বাচন নিয়ে মানুষ বেশ উৎসাহিত হয়ে রয়েছে কারণ এই ৫ টি রাজ্যের ফলাফল ২০১৯ এর ফলাফল জানিয়ে দেবে। ৫ রাজ্যের মধ্যে ছত্রিশগড়, মধ্যপ্রদেশ ও মিজোরামে মতদান সম্পন্ন হয়ে গেছে। মধ্যপ্রদেশে আধিকারিক ফলাফল ঘোষণা না হলেও একটা আনুমানিক ফলাফল জনতা জেনে গেছে। কারণ মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস EVM মেশিনের উপর দায় চাপাতে শুরু করেছে। জনতা এটা ভালো ভাবেই জানে যে EVM মেশিনের দায় কংগ্রেস সেখানেই চাপায় যেখানে তারা হারতে শুরু করে। সেই ভিত্তিতে মধ্যপ্রদেশে বিজেপি জয়লাভ করছে এটা ধরেই নেওয়া হচ্ছে। তবে যে রাজ্য নিয়ে মিডিয়া বিজেপির উপর চাপ সৃষ্টি করছিল তা হলো রাজস্থান।

বিজেপি রাজস্থানে হারবে এমনটাই দাবি করেছে কিছু মিডিয়া। তবে বর্তমান রাজনীতির চান্যক নামে পরিচিত অমিত শাহ রাজস্থান নির্বাচন ইস্যুতে যে গণিত কষেছেন তা মিডিয়া ও বিরোধীদের ভবিষ্যতবানীর উপর বজ্রপাত করতে চলেছে। আসলে মধ্যপ্রদেশে,মিজোরাম ও ছত্রিশগড়ে মতদান হওয়ার পর এখন প্রধানমন্ত্রী মোদী ও অমিত শাহ রাজস্থান ও তেলেঙ্গানার উপর পুরো নজর দিয়েছে। তেলেঙ্গানাতে বিজেপি এত সহজে সরকার গড়তে পারবে না কিন্তু ত্রিকোনিয় নির্বাচনে কোনো পার্টি যদি বহুমত না পায় তাহলে বিজেপি, টিয়ারএসকে সমর্থন দিয়ে লোকসভা ভোটের জন্য NDA কে শক্তিশালী করে তুলতে পারে।

এখন একমাত্র রাজস্থানের উপর মূল নজর থাকবে বিজেপি। রি কারণে এখনো অবধি বিজেপি রাজস্থানে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ১০ টি বড়ো জনসভা করে ফেলেছে। মোদীজি বিদেশ থেকে ফেরার পর আরো কিছু বড়ো রালির আয়োজন করা হবে যাতে একটা বড়ো মোদী ঝড় দেখা যেতে পারে। অমিত শাহের নজর ২২ জেলার ১২০ টি বিধান সভা আসনের উপর রয়েছে। এই কারণে অমিত শাহ, নরেন্দ্র মোদীর আরো কয়েকটি রালি অনুষ্ঠিত করার জন্য বলেছেন।

রাজস্থানে আরো বেশ কয়েকটি রালি সম্পন্ন হলে বিজেপি “মোদী এফেক্ট” এর একটা ভালো ফলাফল পাবে। রাজস্থানে প্রচারের সময় সরকার গরিব কল্যাণ যোজনার উপর বিশেষ ভূমিকা দেবে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে যদি মোদী আরো কিছু রালি সম্পন্ন করে ফেলে তাহলে ২২ জেলার ১২০ টি আসনের মধ্যে ৮০ টি আসন জিতে নিতে পারবে।

Leave a Reply

Open

Close