Press "Enter" to skip to content

দিল্লীতে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর জন্য বিজেপি নামাতে চলেছে এই নেতাকে, নাম শুনেই মাথায় হাত পড়লো কেজরিওয়ালের।

সামনে লোকসভা নির্বাচন, তাই রাজনৈতিক দলগুলির প্রস্তুতি চরমে উঠেছে। প্রত্যেক পার্টির বড় বড় নেতারা রাজ্যে রাজ্যে গিয়ে বড় বড় রালি সম্বোধন করতে শুরু করে দিয়েছেন। একদিকে মোদীকে হারানোর জন্য পুরো বিপক্ষ জোট বাঁধছে তো অন্যদিকে মোদী দেশের রাষ্ট্রবাদী ও হিন্দুত্ববাদীদের হাত ধরে আবার ২০১৯ এ ক্ষমতায় আসার জন্য নেমে পড়েছে। তবে দেশজুড়ে এই রাজনৈতিক উঠাপাথলের সবথেকে বেশি প্রভাব পড়েছে দিল্লী ও পশ্চিমবঙ্গে। বিজেপি টার্গেট নিয়েছে যে পশ্চিমবঙ্গ থেকে লোকসভায় বেশি সংখক আসন সংগ্রহ করার সাথে সাথে ২০২১ শে মমতা ব্যানার্জীকে ক্ষমতা থেকে সরানো। এক- দুদিন পরেই মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হবে, তা শেষ হওয়ার পরেই পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি কর্তাদের জন্য কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব থেকে বড় উপহার পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে যা এখনো সার্বজনীক করা হয়নি।

অন্যদিকে বিধানসভা নির্বাচনে কেজরিওয়ালকেও ক্ষমতা থেকে অপসারণ করার জন্য এবং লোকসভায় বেশি আসন পাওয়ার জন্য দিল্লীতে নেমে পড়েছে কেন্দ্রীয় বিজেপি কর্তৃপক্ষ। কেজরিওয়ালের পার্টি দিল্লীতে যে সমস্থ পতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল তার কোনোটাই পূর্ন করতে পারেনি। যার জন্য বিজেপি দিল্লীতে কেজরিওয়ালের সরকারকে ঘিরতে শুরু করে দিয়েছে। কেজরিওয়াল দিল্লীবাসীকে প্রচুর সুবিধাপ্রদানের আশ্বাস দিয়ে এবং আন্না হাজারের অভিযানের ভিত্তিতে ক্ষমতায় এসেছিল।কিন্তু এখন দিল্লীর রাজনৈতিক খেলা সম্পূর্নরূপে পাল্টি খেয়ে গেছে। জানিয়ে দি, কেজরিওয়ালের পার্টি দিল্লীতে মন খুলে তোষণ রাজনীতি শুরু করেছে যা দিল্লীবাসীর মনকে আম আদমি পার্টি থেকে বিমুখ করেছে বলেই মনে করা হচ্ছে। কেজরিওয়ালের উপনির্বাচনের আগে পামহলেট বিতরণ করেছিল সেখানে লেখা হয়েছিল যে -“দিল্লী মুসলিমদের, মুঘল, তুঘলগরায় এখানে শাসন করে গেছে।

যদি আবার শাসন করতে চাও তাহলে একজুট হয়ে কেজরিওয়ালকে ভোট প্রদান করো।” মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল নিজে দূর্নীতি মামলায় জড়িয়ে পড়েছেন বলেও অভিযোগ সামনের এসেছে। দিল্লীতে আম আদমি পার্টির কেজরিওয়ালকে টক্কর দেওয়ার জন্য পার্টি এক বড় নেতাকে নির্বাচিত করে নিয়েছে। ইনি হলেন মনোজ তেওয়ারী।মনোজ তেওয়ারী এখন পূর্ব দিল্লী সংসদীয় ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী মোদীর নেতৃত্বে কাজ করছেন। দিল্লীতে বিজেপি নেতাদের মধ্যে অনেকগুলো বড় বড় নাম সামনে এসেছে কিন্তু মনোজ তেওয়ারীর নাম সবথেকে প্রথমে আসছে। আগত সময়ে দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী পদপার্থী হিসেবে মনোজ তেওয়ারীকে নামানো হবে। দিল্লীতে বিজেপি নেতাদের মধ্যে মনোজ তেওয়ারী সবথেকে বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। মনোজ তেওয়ারীর দিল্লীবাসীর বাড়ি বাড়ি গিয়ে সমস্যা শুনে আসেন এবং তা সমাধানের ভরপুর প্রয়াস করেন,

তার এই নীতি দিল্লীবাসীর মন জয় করে নিয়েছে বলে রাজনৈতিক মহলের দাবি। মনোজ তেওয়ারীকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে উনি বলেন, আমি পদের জন্য মাঠে নেমে কাজ করি না। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য দিল্লীবাসীর স্বার্থে কাজ করি।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.