Press "Enter" to skip to content

অনুব্রতর গড়ে বড়সড় ভাঙন ধরিয়ে একটি পঞ্চায়েত দখল নিলো বিজেপি, লক্ষ্য আরও সাতটি পঞ্চায়েতের

তৃণমূলের দাপুটে নেতা তথা বীরভূম জেলার তৃণমূল সভাপতি অনুব্রতের দুর্গে বড়সড় ভাঙন ধরালো বিজেপি। বীরভূমে তৃণমূল পরিচালিত ডাবুক গ্রাম পঞ্চায়েত এবার বিজেপির দখলে। এর আগে ময়ূরেশ্বর ১ নম্বর ব্লকের ৯টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে একটি নির্বাচনের সময় দখল করেছিল বিজেপি। এবার ডাবুক পঞ্চায়েতও দখল করলো বিজেপি। সাথে সাথে শনিবার সভা থেকে বাকি আটটি পঞ্চায়েতও দখল নেওয়ার শপথ নিলো বিজেপি।

১৩ টি আসন বিশিষ্ট ডাবুক গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপি হাতে সদস্য ছিল মাত্র দুই জন, বাকি দশটির মধ্যে ৯ টি তৃণমূল এবং একটি সিপিএমের হাতে ছিলো। সিপিএম এর পঞ্চায়েত সদস্য এর আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন, শনিবার তৃণমূলের ছয় সদস্য বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর বিজেপির সদস্য সংখ্যা হয়ে দাঁড়ায় ৯ জন। এর ফলে সহজেই ওই পঞ্চায়েতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হাসিল করে গেরুয়া শিবির।

সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া পঞ্চায়েত সদস্যদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেয় বিজেপির রাজ্য সদস্য অর্জুন সাহা। উপস্থিত ছিলেন, জেলা সাধারণ সম্পাদক অতনু চট্টোপাধ্যায়, ময়ূরেশ্বর ১ বি মণ্ডল সম্পাদক অনিরুদ্ধ রায়, নিখিল বন্দ্যোপাধ্যায়, মল্লারপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধান সমীর লোহার, উৎপল রুজ সহ অনেকে।

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া পঞ্চায়েত সদস্য তিমির গোস্বামী বলেন, ‘ মমতা ব্যানার্জীর আদর্শে অনুপ্রেরিত হয়ে তৃণমূলে নাম লিখিয়েছিলাম। কিন্তু এটা আর আগের মত দল নেই, পুরানো নেতাদের সন্মান দেওয়া হয়না। চারিদিকে দুর্নীতি এবং সন্ত্রাস। টাই বাধ্য হয়ে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলাম।”