Press "Enter" to skip to content

উত্তরপূর্ব ভারতে গেরুয়া ঝড়! বামপন্থীদের সাফ করে বিজেপির দুর্দান্ত জয় ত্রিপুরায়।

ত্রিপুরার পৌরসভা উপনির্বাচনে ব্যাপক ফলাফল নিয়ে হাজির হলো । ৬৭ টি আসনের মধ্যে ৬৬ টি আসন দখল করেছে এবং কোনোরকমে ১ টি আসন দখল করতে সক্ষম হয়েছে বামপন্থী থেকে বামপন্থী সাফাই অভিযান ব্যাপক হারে শুরু হয়েছে তার প্রমান আরো একবার হাতে নাতে মিললো। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, পৌরসভা নির্বাচনে কোনোরকমে ১ টা আসন জিতে নিজেদের অস্থিতকে টিকিয়ে রাখতে পেরেছে । পানি সাগর পুরসভার যে ১১ টি আসনে ভোট হয়েছিল তার মধ্যেই ১ টি আসন দখল করতে সক্ষম হয়েছে । অন্যদিকে আগরতলা মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের ৪টি ওয়ার্ড এ টিকেই থাকতে পারেনি বিরোধী দলগুলি।

৪ টি ওয়ার্ডেই বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছে রাষ্ট্রীয় দল বিজেপি। লোকসভা নির্বাচনের আগে উত্তরপূর্ব ভারতে এত বড় জয়লাভের জন্য খুশির মহল বিজেপির অন্দরে। তবে এখন ফলপ্রকাশের পর বামপন্থী, কট্টরপন্থী ও কংগ্রেস একই সুরে বিজেপির সমালোচনা শুরু করেছে। বিরোধীদের দাবি, মানুষকে ভুল বুঝিয়ে ভোট নিয়েছে বিজেপি। এমনকি হারের পর বিজেপিকে সন্ত্রাসবাদী পার্টি বলেও মন্তব্য করেছে ত্রিপুরার কিছু সিপিএম সমর্থক।

অন্যদিকে বিজেপির বিরোধীদের দাবিকে পাত্তা না দিয়ে ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। উল্ল্যেখ, এই উপনির্বাচনে ৮১% এর বেশি ভোট পড়েছে।  জয়লাভের পর পর্যবেক্ষক মুরলী দেওধর কর্মীদের বাহবা জানিয়েছেন। এই জয়কে জনতার জয় এবং কর্মীদের পরিশ্রমের ফল বলে অভিহিত করেছেন তিনি।

তিন রাজ্যে বিজেপির হারের পর মিডিয়া মোদী ঝড় নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছিল। মধ্যে প্রদেশে, রাজস্থান ও ছত্রিশগড়ে বিজেপির হারে হতাশার ভাব ছিল কার্যকর্তাদের মধ্যে। কিন্তু এখন হরিয়ানার পুরভোট, গুজরাটের বিধান সভা ভোটে ও ত্রিপুরা পুরসভা উপনির্বাচনে জয়লাভের পর এখন উল্টে অস্থিতে বিরোধী ও মিডিয়া।

8 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.