Press "Enter" to skip to content

বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য: মুসলিম ধর্মগুরু প্রধানমন্ত্রী মোদীকে যে খাম দিয়েছিলেন সেটা থেকে বেরিয়ে এলো..

ভারতের প্রধানমন্ত্রী আজকের দিনে সবথেকে জনপ্রিয় নেতা হিসেবে উঠে এসেছে। ইনি যেখানেই যান না কেন সমস্ত মানুষ ইনার দিকে আকর্ষিত হন। নরেন্দ্র মোদীজির রাজনৈতিক ছবি পরিষ্কার হওয়ার জন্য দেশের মানুষ উনাকে খুব পছন্দ করেন। কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী ইন্দোর গিয়েছিলেন সেখানে উনি একটা খ্যাতনামা সম্মান পেয়েছিলেন, সেইসময় ইন্দোরের ভূমি মোদী মোদী রবে গুজে উঠেছিল। ইন্দোর যাত্রায় মুসলিমদের বোহরা সম্প্রদায়ের কাছেও গিয়েছিলেন । বোহারা সম্প্রদায় সমাজের একটা সুনামসম্পন্ন জাতি যাদের সাথে নরেন্দ্র মোদী সাক্ষাত করার জন্য পৌঁছেছিলেন।

আরো পড়ুন : ভারতীয় মুদ্রাকে শক্তিশালী করতে মোদীর মাস্টারস্ট্রোক! বিশ্বের সবথেকে বড় CSA চুক্তি করলো ভারত ও জাপান।

সেখানে নরেন্দ্র মোদী মন খুলে বোহরা সম্প্রদায়ের প্রশংসা করেছিলেন যার চর্চা এখনও রাজনৈতিক মহলে চলছে। তবে সেই সময়ের যে বিষয়ে সবথেকে বেশি চর্চা হয়েছে সেটা হলো বোহরা সম্পদায় এর ধর্মগুরুর দ্বারা দেওয়া খাম। বোহরা সম্পদায় এর ধর্মগুরুর ওই বন্ধ খামে নরেন্দ্র মোদীকে কি দিয়েছেন এটা জানার ইচ্ছা সকলেই প্রকাশ করেছিল। বন্ধ খামে বোহরা সম্প্রদায়ের ধর্মগুরু প্ৰধানমন্ত্রী মোদীকে যা দিয়েছিল সেটা অবাক করার মতো।

নরেন্দ্র মোদী যেদিন ইন্দোর গিয়েছিলেন সেইদিন পুরো ইন্দোরের সাথে সাথে বোহরা সমাজ উনাকে স্বাগত জানিয়েছিলেন। বোহারা সম্প্রদায়ের মধ্যে অনেকক্ষন সময় ব্যাতিত করার পর উনি ৩০ মিনিট ধরে বক্তৃতাও দিয়েছিলেন। সেই বক্তৃতায় মোদীজি বলেন কিভাবে বোহারা সম্প্রদায় ব্যাবসা বাণিজ্যে ভারতকে এগিয়ে নিয়ে যেতে নিজেদের অবদান রাখছে। বোহরা সমাজের ধৰ্মগুরুরাও প্রধানমন্ত্রী মোদীকে খুব সন্মান জানান।

বোহরা সম্প্রদায়ের ধৰ্মগুরু প্রধানমন্ত্রীকে একটা খাম, চাদর ও একটা পবিত্র মালা প্রদান করেছিলেন। একই সাথে শিবরাজ চৌহানকেউ ১ টি খাম প্রদান করেছিলেন। জানিয়ে দি মোদীজিকে দেওয়া সেই খামের মধ্যে ২ কোটি টাকার চেক ছিল একইসাথে শিবরাজ চৌহানকে দেওয়া খামে ৫১ লাখ এর চেক ছিল। এই টাকা প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলের জন্য দান করেছে বোহরা সমাজ।প্রথমদিকে এই খামের ব্যাপারে মিডিয়াও জানতে পারেনি কিন্তু পরে জানার পর মুসলিম সমাজের এই জাতির নিয়ে চারিদিকে বাহবা ছড়িয়ে পড়ে।