Press "Enter" to skip to content

মুসলিম যুবতীকে প্রেম করার অপরাধে দলিত যুবককে পিটিয়ে হত্যা করলো মেয়ের পরিবার। নিশ্চুপ বলিউড থেকে বুদ্ধিজীবী সকলে।

আবার সেই গণপিটুনি, আর এই গণপিটুনির ফলে মৃত্যু যুবকের, এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানে। কিন্তু এবার এই গণপিটুনির কারন আলাদা যারা গণপিটুনিতে অভিযুক্ত তাদের হিন্দু নয়। তাই এবার আর এই খবর নিয়ে কেউ মাথা ঘামায়নি, নিশ্চুপ বুদ্ধিজীবীরাও। পুরো দেশ এই খবর নিয়ে তোলপাড় হয়নি। কোনো মিডিয়া ব্রেকিং নিউজ করে দেখাইনি এই খবর। বুদ্ধিজীবীরা মোমবাতি মিছিল করেন নি। এখন কেউ সরকার কে প্রশ্ন করেননি। বিতর্কের সৃস্টি হয়নি। কারন একটাই সেটা হল এবার এই ঘটনার প্রেক্ষাপট আলাদা।

 

প্রাপ্ত খবর অনুয়ায়ী, রাজস্থান রাজ্যের বারমের জেলার ভিন্ডেকাপার গ্রামের বাসিন্দা খেতারাম ভিল, যার বয়স ২২ বছর। এই দলিত যুবকের প্রেম ছিল এক মুসলিম মেয়ের সাথে। শুধু মাত্র এই প্রেমের সম্পর্ক থাকার কারনেই এই দলিত যুবককে পিটিয়ে হত্যা করে সেই মেয়েটির পরিবার সহ একাধিক লোক। ঘটনা স্থলে পুলিশ পৌঁছে দেখে যে, যুবকটির মৃতদেহ ঘটনাস্থল থেকে ৫০০ মিটার দূরে পড়ে আছে। তারা জানান যে যুবকটিকে হত্যা করার সময় যুবকটির হাত এবং পা দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছিল। এবং পরে পুলিশ মৃত দলিত যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

মৃতের ভাই পুলিশকে জানান যে, সেই মুসলিম যুবতীর পরিবারের লোক তার দাদাকে আগেও অনেক বার মারার চেষ্টা করে। কিন্তু তখন সফল না হওয়ায় এবার তার দাদাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় এবং সেখানকার কোনো এক ক্ষেতের মধ্যে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে তারাই এবার হত্যার কথা বলে যায় তাদের বাড়িতে এসে।

পরে তাদের পরিবারের লোকজন সেখানে গিয়ে সেই মৃতদেহ দেখতে পায় এবং তারা পুলিশ কে খবর দেয়। আসলে বলিউড হোক বা বুদ্ধিজীবী এরা সকলেই ভন্ড যারা একমাত্র টাকার নিয়ন্ত্রণে প্রতিবাদে নামতে পারে।

#অগ্নিপুত্র