Press "Enter" to skip to content

সিংহ খাচায় থাকুক আর বনে, সে জঙ্গলের রাজাই হয়। আর এটাই প্রমাণ করলেন বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন

এটাই পার্থক্য পাকিস্তানের কাপুরুষ সেনা আর ভারতের বীর জওয়ানদের মধ্যে। পাকিস্তানি সেনা এতটাই কাপুরুষ যে ধর্মীয় দিক দিয়ে মানুষদের ব্রেন ওয়াশ করে তাঁদের জঙ্গি বানায়। সামনে এসে লড়তে পারেনা, আর জঙ্গি হামলা করে। আর ভারতের সুপুত্ররা বীরের মত সামনে থেকে লড়াই করে।

আজ আবার পাকিস্তানের পর্দাফাঁস হল, ভারত পাকিস্তানের জঙ্গি আস্তানাকে গুঁড়িয়ে দিলে, পাকিস্তান আজ তাঁদের ফাইটার জেট এনে ভারতীয় সেনাকে নিশানা বানাতে চেয়েছিল। ভারতীয় সেনা পাকিস্তানের এফ-১৬ বিমানের গতিবিধি ট্রেস করে নেয়। আর উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন মিশ্রা মিগ-২১ নিয়ে তাঁদের সাথে লড়াই করার জন্য উড়ে জান।

উনি পাকিস্তানের এফ-১৬ কে মিগ বিমান দিয়েই পরাস্ত করে দেন। কিন্তু দুঃখজনক ভাবে ওনার বিমান ও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আর তিনি প্যারাসুট দিয়ে বিমান থেকে লাফ মারেন। কিন্তু ওনার দুর্ভাগ্য যে উনি ভারতে ল্যান্ড না করে, সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে গিয়ে পরেন।

আর তারপর পাকিস্তানি সেনা কাপুরুষের মত দল বেধে ওনার উপর আক্রমণ করে। ওনার নাক মুখ দিয়ে রক্ত মিগ-২১ থেকে লাফ দেওয়ার কারণে না, ওই রক্ত দল বেধে আসা পাকিস্তানি সেনার মারের কারণে বেড়িয়েছে। পাকিস্তানিরা ওনাকে ধরেই অত্যাচার করতে শুরু করে দেয়। আর সোজাসুজি জেনেভা কানেকশন এর লঙ্ঘন করা হয়। এক যুদ্ধ বন্দির সাথে ভদ্র ব্যাবহার করে ওনাকে তাঁর দেশে ফেরত দেওয়ারই নিয়ম।

পাকিস্তানিরা উইং কম্যান্ডার অভিনন্দনের হাত-পা বেধে ফেলে। আর ওনাকে গ্রেফতার করে। আর ওনাকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসবাদ করার সময় একটি ভিডিও জারি করে পাকিস্তান। পাকিস্তানিরা ওনার নাম, কাজ, আর ধর্ম জিজ্ঞাসা করলে। উইং কম্যান্ডার ছাতি ফুলিয়ে সব বলেন। আর তিনি এও বলেন যে, আমি ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট।

ওনার মুখ আর আওয়াজে কোন প্রকারের শঙ্কা ছিলনা। উনি সিংহর মত জবাব দিচ্ছিলেন। পাকিস্তানিরা ওনাকে ওনার SQUADRON এর ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে, উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বলেন, ‘এটা আমি তোমাদের বলব না”

শত্রুর হাতে থেকেও সিংহের মত জবাব দিয়েছেন আমাদের উইং কম্যান্ডার। জঙ্গি পাকিস্তান ওনার উপর অত্যাচার করে জেনেভা কানেকশন এর লঙ্ঘন করা হয়। ওনাকে ভারতের হাতে একদম অক্ষত অবস্থায় পাকিস্তানকে তুলে দিতে হবেই। নাহলে পাকিস্তানের এটা একটা নতুন ভুল হবে, যেই ভুল ইতিহাস থেকে ওদের নাম মুছে দেওয়ার জন্য দায়ী থাকবে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.