Press "Enter" to skip to content

বড়ো খবর: BSFএর রুদ্ররূপ দেখে পালাতে শুরু করেছে পাক রেঞ্জার্স! সীমান্তের গ্রাম খালি করাতে ব্যাস্ত পাকিস্থান।

ইসলামের নামে আতঙ্কবাদ ছড়ানো দেশ বিগত দিনে জম্মু সীমার থাকায় ের নরেন্দ্র কুমারকে অপহরণ করে এবং নৃশংসভাবে হত্যা করে। ভারতের জওয়ানরা পাকিস্থান থেকে এই সমস্তকিছুর হিসাব নিয়ে নিয়েছে। জম্মুর রামনগর সীমান্তে পাকিস্থানের ৬ টি পোস্ট উড়িয়ে দিয়েছে। একই সাথে ১২ এর বেশি পাকিস্থানি রেঞ্জার্সকে মেরে ফেলা হয়েছে। আজ রাজনাথ সিং এটা পর্যন্ত বলে দিয়েছেন যে পাকিস্থানের উপর ঠিকঠাক কাজ করে দিয়েছে তবে এখন আরো হবে। অর্থাৎ সরকার কে আরো অপারেশন চালানোর জন্য বলেছে। রাজনাথ সিং বলেন, “কিছু হয়েছে, আমি বলবো না। বিশ্বাস রাখুন ঠিকথাক হয়েছে…. ২-৩ আগে যা হয়েছে তা ঠিকঠাক হয়েছে। তবে অপেক্ষা করুন আর অনেককিছু হবে।”

সরকার সাফ করে দিয়েছে যে পাকিস্থানের ১২ সৈনিক মারা যথেষ্ট নয় এটা শুধু ঠিকঠাক আর এখন এর উপর কিছু মন্তব্য করা হবে না কারণ আরো বড়ো কিছু করা হবে। পাকিস্থান থেকেও এই মুহূর্তে একটা বড়ো খবর আসছে। আসলে ভারতের BSF এর রুদ্ররুপ দেখে এবং ভারত সরকারের মন্তব্য এর পর পাকিস্থান লাগাতার তাদের সীমায় পরিবর্তন করতে শুরু করে দিয়েছে। পাপ্ত খবর অনুযায়ী, পাকিস্তানি রেঞ্জার্স সীমায় থাকা পোষ্টগুলিকে খালি করতে শুরু করে দিয়েছে এবং পাকিস্থানি আর্মিকে, রেঞ্জার্স এর জায়গায় মোতায়েন করা হয়েছে।

একই সাথে সীমান্ত থেকে ৫ কিমি এলাকার মধ্যে থাকা গ্রামগুলিকে ফাঁকা করার কাজ করছে পাকিস্থান। পাকিস্থানের এক বুদ্ধিজীবীর মতে সীমান্তের গ্রামের মানুষ পাকিস্তানের উপর রাগ প্রকাশ করছে। কারণ পাকিস্থানি সেনা কোনো সময় না দিয়েই গ্রাম খালি করতে শুরু করেছে। পাকিস্থানের সীমান্তের গ্রামবাসীর বক্তব্য, যদি ভারতকে সামলাতে পারবে না তাহলে কেন পা বাড়িয়ে দ্বন্দ বাড়াতে যাও। এমনিতে BSF শুধু মাত্র ভারতকে রক্ষার জন্য ডিফেন্ড মুডে থাকে এবং কোনো আক্রমণ বা অপেরাশন চালানোর জন্য ভারতীয় সেনা নামানো হয়।

কিন্তু এখন BSF কে ভারত সরকার খোলাখুলি ছাড় দিয়েছে এবং BSF তাদের রুদ্ররূপ ধারণ করেছে। এই জন্য পাকিস্তানের ঘুম উড়ে গিয়েছে। পাকিস্থান বার বার ভারতের উপর আক্রমণ করে মার খায় কিন্তু এবার পাকিস্তানের সামনে বড়োসড়ো সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। প্রথমেই ১ এর বদলে BSF ১২ স্কোর করে রেখে দিয়েছে। তারউপর ভারত এখনো আরো পদক্ষেপ নেবে তার সংকেত রাজনাথ সিং উনার বক্তব্য এর মাধ্যমে প্রকাশ করে দিয়েছেন।