Press "Enter" to skip to content

বোরখা পড়ে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি হল গুজরাটের ব্যাংক গুলোতে! ক্ষোভ প্রকাশ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের

দেশ জুড়ে আর ঘোমটা নিয়ে চলা বিতর্কের মাঝেই আরেকটি নতুন ঘটনা সামনে আসছে।  রাজ্যের কিছু ব্যাংকে একটি নোটিশ লাগানো হয়েছে, যাতে লেখা আছে যে পড়ে ব্যাংকে প্রবেশ নিষেধ। যদিও বিতর্ক শুরু হওয়ার পর ওই নোটিশ গুলোকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার গুজরাটের সুরাটের বলে জানা যাচ্ছে। সেখানে আম্বাজি রোডের ব্যাংক অফ বরদার শাখার একটি নোটিশ লাগিয়ে বলা হয় যে, ব্যাংকে , হেলমেট আর চশমা পড়ে প্রবেশ নিষেধ।ব্যাংক অফ বরদার মত সুরাটের নিউ সিভিল হাসপাতাল ক্যাম্পাসের দেনা ব্যাংক শাখাতেও এরকম নোটিশ লাগানো হয়েছে।

ওই নোটিশ লাগানোর পর সম্প্রদায়ের মানুষ ক্ষুব্ধ হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই নোটিশের ছবি শেয়ার করে। আর শোনা যাচ্ছে যে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ছবি ভাইরাল হওয়ার পর ব্যাংক অফ বরোদা থেকে ওই নোটিশ সরিয়ে ফেলা হয়।

ইংরেজি সংবাদ মাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়ার অনুযায়ী, আম্বাজি রোডের ব্যাংক অফ বরোদা শাখার ম্যানেজার নবীন গোখিয়া বলেন, ‘কোন সম্প্রদায়কে আঘাত দেওয়ার জন্য এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি।” উনি বলেন, ‘আমরা নোটিশ সরিয়ে দিয়েছি। কয়েক সপ্তাহ আগে এই নোটিশ গুলোকে লাগানো হয়েছিল, কিন্তু আপত্তির পর সেগুলোকে সরিয়ে ফেলা হয়।”

আম্বাজি রোডের ব্যাংক অফ বরোদা শাখার নোটিশে লেখা ছিল, ‘ দয়া করে হেলমেট আর বোরখা খুলে রাখুন, হেলমেট আর বোরখা পড়ে ব্যাংকে প্রবেশ নিষেধ।” সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, ব্যাংকে লাগানো ওই নোটিশে বলা হয়েছিল যে, ‘পুলিশ কমিশনারের আদেশ অনুসারে, ব্যাংক এবং ব্যাংকের এটিএমে বোরখা, হেলমেট আর চশমা পড়ে প্রবেশ করবেন না।”

 

11 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.