Press "Enter" to skip to content

কুম্ভমেলার আগে হিন্দুদের জন্য বড় উপহার দিলেন যোগী সরকার! হিন্দু তোষণ হচ্ছে বলে অভিযোগ বিরোধিদের।

২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি দারুনভাবে শুরু হয়ে গিয়েছে। সমস্থ পার্টি নিজের দলকে মজবুত করার জন্য এবং জনতাকে নিজের দিকে টানার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। দেশের বড় বড়2 রাজনৈতিক দলগুলি একে অপরের ওপর আক্রমণ শুরু করে দিয়েছে। বিজেপি পার্টিও দেশের জনগণের জন্য একের পর এক বড় উপহার দিয়েই চলেছে। এই নির্বাচনী মহলে উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকারও জনগণের সেবা করার কোন সুযোগ ছাড়তে রাজি নয়। উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার কুম্ভ মেলার ভক্তদের জন্য লখনউ থেকে (জম্মু কাশ্মীর) পর্যন্ত বাস সার্ভিস চালু করে দিয়েছে। এই বাস পরিষেবা তিনটি রুটে লখনও থেকে কাটার পর্যন্ত যাতায়াত করবে। সোমবার দিন যোগী সরকার জম্মু কাশ্মীর ও হিমাচলের সাথে বাস পরিষেবা চালানোর চুক্তি সম্পন্ন করেছে।

সোমবার দিন কাতার থেকে বাস সার্ভিস চালানোর জন্য সবুজ ইঙ্গিত পেয়েছে যোগী সরকার। জানিয়ে দি, মূলত হিন্দু যাত্রীদের জন্য যোগী সরকার এই বাস সার্ভিস চালু করেছে। এই তিন রুটের জন্য খুবই নূন্যতম ভাড়া রেখেছে যোগী সরকার। প্রথম রুটে লখনউ থেকে আগ্রা, মথুরা ও কাশ্মীর গেট হয়ে বাস কাতার পৌঁছাবে। এই রুটের দূরত্ব ১১৯৭ কিমি হবে।

দ্বিতীয় রুটে লখনউ থেকে সাহারানপুর, জলন্ধরপুর, পাঠানকোট হয়ে কাতার পৌঁছাবে। রি বাস রাত্রি ৮ টেই লখনউ থেকে ছাড়বে। এই রুটের দূরত্ব হবে ১১৪৫ কিমি। তৃতীয় রুটে মুজাফারনগর, হরিদ্বার হয়ে কাতার পৌঁছাবে। এই রুটের দুরত্ব ১১২০ কিমি হবে।

যোগী সরকার জম্মু কাশ্মীরের হিন্দুদের জন্য এই উপহার প্রদান করেছেন। এই বাস সার্ভিস এর মাধ্যমে ধৰ্মপ্রাণ হিন্দুরা কুম্ভ মেলায় আসার সুযোগ পাবে। যদিও যোগীর পদক্ষেপ নিয়ে উত্তরপ্রদেশের সপা ও বসপা বিজেপির উপর আক্রমন শুরু করেছে। তাদের দাবি যোগী আদিত্যনাথ রাজ্যের ধর্মনিরপেক্ষতা ভেঙে দিচ্ছেন এবং হিন্দুদের জন্য বেশি দরদ দেখাচ্ছেন। প্রয়াগরাজে আয়োজিত কুম্ভ মেলা বিশ্বস্তরীয় করার জন্য যোগী সরকার ও মোদী সরকার লাগাতর কাজ চালাচ্ছে কিন্তু এই বিষয় বিরোধিদের গলা দিয়ে কোনোভাবেই নামছে না।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.