Press "Enter" to skip to content

সৌদি আরবে মুত্র দুর্নীতি: উঠের মুত্র বলে নিজের মূত্র বিক্রি করায় গ্রেফতার পাকিস্তানী যুবক।

সৌদি আরব (Saudi Arabia) এবং তার পাশাপাশি এলাকায় উঠের মূত্র এক অন্য পর্যায়ের সন্মান পায়। ধার্মিক কারণে সৌদি আরব সহ আশেপাশের ইসলামিক দেশে উঠের মূত্র ব্যাপকভাবে প্রচলিত হয়। অনেক বড় বড় কোম্পানি উঠের মূত্র বিক্রি করার জন্য প্লান্ট লাগিয়ে ফেলেছে। আরবের দেশগুলিতে উঠের মূত্রের চাহিদা ৩০০% হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। আগে আরবের কাবিলায় এলাকায় উঠের মূত্র পান করা হতো কিন্তু এখন আরবের প্রত্যেক বাড়িতে উঠের মূত্রকে পবিত্র ও পুষ্টিকর মান্য করে পান করা হয়। এই কারণে চাহিদা এত ব্যাপক যে বহু মানুষ এটাকে নিজের মুখ্য রোজগার করে ফেলেছে। উঠের মূত্রকে প্ল্যান্টে প্যাক করে বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে, অনলাইন বিক্রি, হোমে ডেলিভারীতেও উঠের মূত্রের বিক্রি পিছিয়ে নেই। আর সৌদি আরব এবং পাশাপাশি এলাকার মানুষজন উঠের মূত্রকে হেলথি টনিক মান্যতা দিয়ে পান করছে।

ভারতে যেভাবে গায়ের দুধকে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে বিক্রি করা হয় সেইভাবে কিছুজন উঠের মূত্রকে বোতলে পূর্ন করে বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিক্রি করছে। সৌদির মুসলিমরা ব্যাপকহারে উঠের মূত্র পান করার দরুন এর স্বাদ ভালোভাবেই চেনে। এখন সৌদি থেকে উঠের মুত্রতে দুর্নীতির করা প্রসঙ্গে বড় ঘটনা সামনে এসেছে। আসলে মহম্মদ খুরশিদ নামক এক যুবক উঠের মূত্রের নামে নিজের মুত্র বিক্রির ধান্দা চালাতো। ওই মুত্র পানের পর কিছুজনের সন্দেহ হয় তারা পুলিশের কাছে অভিযোগ জানায়। এরপর তদন্ত হলে প্রমাণিত হয় যে মুত্র উঠের নয় বরং মানুষের।

পুলিশ মহম্মদ খুরিশীদের বাসস্থানা তল্লাশি চালায় সেখান থেকে বহু বোতল মুত্র পাওয়া যায়। এই সকল মূত্রের বোতলের মধ্যে কিছুতে সম্পুর্ন উঠের মুত্র ছিল, কিছুতে মানুষের মুত্র এবং কিছু বোতলে মানুষ ও উঠের মূত্র মিশ্রণ ছিল। পুলিশ মহম্মদ খুরশিদকে গ্রেফতার করেছে। তদন্তের পর জানা গেছে মহম্মদ খুরশিদ স্বয়ং নিজের মুত্র বোতলে পূর্ন করে উঠের মুত্র বলে বিক্রি করতো। এইভাবে মহম্মদ খুরশিদ বহুজনকে নিজের মুত্র পান করিয়ে ঠকিয়েছে।