in ,

ব্রেকিং খবর: মাসুদ আজহারকে জন্য বাঁচানোর  ভারতের বিরুদ্ধে ভিটো পাওয়ার ব্যাবহার করলো চীন।

যখন সংযুক্ত রাষ্ট্রের গঠন হয়েছিল তখনই শক্তিশালী দেশগুলি- আমেরিকা,ব্রিটেন ইত্যাদি সংযুক্তরাষ্ট্র সুরক্ষা পরিষদের গঠন করেছিল। সংযুক্তরাষ্ট্র সুরক্ষা পরিষদের মেম্বাররা ভিটো পাওয়ার ব্যাবহার করতে পারে। এই পরিষদের গঠনের সময় এশিয়া মহাদেশ থেকে একটা দেশকে সামিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। জানলে অবাক হবেন, শক্তিশালী দেশগুলি সর্বপ্রথম ভারতকে এই পরিষদে সামিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। ভারতকে এই পরিষদে সামিল হওয়ার জন্য আমন্ত্রণ দেওয়া হয়েছিল।

কিন্তু জওহরলাল নেহেরু এই আমন্ত্রণকে অস্বীকার করে এবং ভিটো পাওয়ার চীনকে প্রদান করে। আজ চীন সেই ভিটো পাওয়ার ভারতের বিরুদ্ধে ব্যাবহার করছে। আজ ভারত সংযুক্ত রাষ্ট্রে জইস-ই-মহম্মদকে গ্লোবাল আতঙ্কি ঘোষিত করার পস্তাব রেখেছিল। বহু দেশ ভারতের পস্তাবকে সমর্থনও করেছিল। কিন্তু চীন এই প্রস্তাবের বিরোধ করে। যেহেতু চীনের কাছে ভিটো পাওয়ার ছিল তাই আজ ভারতের পস্তাব খারিজ হয়ে যায়।

চীন আগেও ভারতের বিরুদ্ধে ভিটো পাওয়ারের ব্যাবহার করেছে আর আজও সেই কাজ করেছে। মাসুদকে গ্লোবাল আতঙ্কবাদী ঘোষণার হাত থেকে আজ চীন বাঁচিয়ে নিল। নেহেরুর কারণে ভারত ভিটো পাওয়ার হাত ছাড়া করেছে যার সুযোগ নিয়ে চীন লাগাতার ভারতের ক্ষতি করছে।চীন কখনোই চাই না যে ভারত এগিয়ে যাক,কারণ ভারত বেশি শক্তিশালী হলে এশিয়া মহাদেশে চীনের প্রভাব কমে যাবে। চীন ভারতকে দুর্বল করে রাখার জন্য ভারত থেকে ব্যাবসা করে পাওয়ার কিছু পরিমান অর্থ জিহাদি দেশ পাকিস্থানকে প্রদান করে। পাকিস্থান সেই টাকা জিহাদের জন্য আতঙ্কবাদী গতিবিধি চালাতে ব্যাবহার করে।

আমি বারাণসী থেকে মোদীর বিরুদ্ধে লড়াই করবো এবং মোদীকে হারিয়ে দেব: চন্দ্রশেখর রাবাত

ফের ভারতে ঢুকতে গিয়ে তাড়া খেয়ে পালালো পাকিস্তানের দুটি যুদ্ধ বিমান!