Press "Enter" to skip to content

জেলার মানুষ ভোট দিল মোদীকে, কলকাতার মানুষ ভোট দিল দিদিকে!

কলকাতা (Kolkata) এর চারটি লোকসভা আসনের সাথে সাথে পশ্চিমবঙ্গের সব আসনগুলির ফলাফল সামনে চলে এসেছে। এবারের লোকসভা নির্বাচন খ্যাতিনামা সিনেমার থেকে কোনো অংশে কম ছিল। আক্রমন, পাল্টা আক্রমণ,অভিযোগ, সাসপেন্স সব মিলিয়ে জমে উঠেছিল ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের উৎসব। অবশ্য পশ্চিমবঙ্গের ছবি একটু আলাদা ছিল। লোকসভার নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে হিংসার ছবি দেখা গেছিল। যার জন্য পুরো দেশের মিডিয়ার ক্যামেরা পশ্চিমবঙ্গের উপর ছিল। পশ্চিমবঙ্গে মোদী বনাম মমতার লড়াই এর উপরেও  নজর ছিল সবার। পশ্চিমবঙ্গে TMC ২০১৪ সালে ৩৪ আসন পেয়েছিল। অন্যদিকে বিজেপি মাত্র ২ টি আসন পেয়েছিল।

কিন্তু ২০১৯ আসতে আসতে বিজেপি এ রাজ্যেও নিজের শক্তি বৃদ্ধি করে নেয়। বিজেপি দাবি করেছিল যে তারা এ রাজ্য ভালো ফলাফল করবে। অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী  মমতা ব্যানার্জী বলেছিলেন, ৪২ এ ৪২ টি আসন পাবো। তবে এখন লোকসভার যে রেজাল্ট সামনে এসেছে সেই অনুযায়ী, বিজেপি-১৮, তৃণমূল-২২, কংগ্রেস-২ টি আসনে রয়েছে। লক্ষণীয় ভাবে বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপক শক্তি বৃদ্ধি করেছে। জেলাগুলির কথা বললে, বিজেপি বড় সংখ্যায় আসন পেয়েছে।

উত্তরবঙ্গ, দক্ষিণবঙ্গ দুই স্থানের জেলাগুলিতে বিজেপি ভালো ফলাফল করেছে। এমনকি গুরুত্বপূর্ণ আসন আসানসোল, যার উপর পুরো দেশের নজর ছিলা সেখানেও বিজেপি জয়লাভ করেছে। তবে কলকাতা(Kolkata) এর আসনগুলিতে বিজেপি খাতা খুলতে পারেনি। উত্তর কলকাতা, দক্ষিণ কলকাতা, যাদবপুর, দমদম এই ৪ টি গুরুত্বপূর্ণ আসনেই তৃণমূল এগিয়ে।

কলকাতা আসন গুলিতে মানুষ মমতার উপর ভরসা দেখিয়েছে অন্যদিকে জেলার বিজেপি ভালো ফলাফল করেছে।
যাদবপুরে মিমি চক্রবর্তী,  দক্ষিণ কলকাতায় মালা রায়, উত্তর কলকাতা থেকে সুদীপ ব্যানার্জী, দমদমে সৌগত রায় এগিয়ে। অর্থাৎ কলকাতার ৪ টি গুরুত্বপূর্ণ আসনেই তৃণমূল এগিয়ে।

you're currently offline