Press "Enter" to skip to content

একজনও বাংলাদেশির গায়ে হাত পড়লে, বিজেপিকে দেখে নেবোঃ মমতা ব্যানার্জী

সিঁথির মোড় থেকে শ্যামবাজার মোড় পর্যন্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর নেতৃত্বে রাষ্ট্রীয় নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয় আজ। এই মিছিলে তৃণমূলের কর্মী, সমর্থক এবং নেতা মন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। আজ মমতা ব্যানার্জীর নেতৃত্বে NRC বিরুদ্ধে রাস্তায় নামে গোটা তৃণমূল দল। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে ভারতীয় জনতা পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি ইমিত শাহ বলেছিলেন যে, বিজেপি আবার ক্ষমতায় এসে গোটা ভারতে NRC প্রক্রিয়া চালু করে দেশ থেকে অবৈধ বাংলাদেশিদের হটাবে। বিজেপি ক্ষমতায় আসার ১০০ দিনের মধ্যে অসমে NRC এর ফাইনাল লিস্ট জারি হয়। আর এই লিস্ট জারি হওয়ার পর থেকেই তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী NRC এর বিরুদ্ধে সূর চরাতে থাকেন।

মমতা ব্যানার্জী বলেন, NRC সমস্ত ধর্মের মধ্যে ভেদাভেদ সৃষ্টি করার জন্য লাগু করা হয়েছে। আমি এই বিল মানিনা। মমতা ব্যানার্জী বলেন, NRC এর নামে মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে যারা, তাঁরা আগুন নিয়ে খেলছে। বিজেপি যদি NRC এর নামে বাংলার একজনের গায়েও হাত দেয়, তাহলে আমরা ওদের চরম শিক্ষা দেবো। এর আগে ২০১৪ এর নির্বাচনী প্রচারে এসে নরেন্দ্র মোদী এই রাজ্য থেকে অবৈধ বাংলাদেশীদের হটানোর কথা বলেছিলেন। তখনও মমতা ব্যানার্জী বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদীর বিরোধিতা করে বলেছিলেন, ‘একজন বাংলাদেশির গায়েও হাত দেওয়া যাবেনা। কোন বাংলাদেশির গায়ে হাত দিলে বিজেপিকে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।”

আপনাদের জানিয়ে রাখি, অসমে NRC-তে প্রায় ১৯ লক্ষ মানুষের নাম না থাকার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বিজেপির উপর ধর্মের নামে দেশকে ভাগ করার অভিযোগ তুলেছিলেন। এর আগে NRC এর বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফ থেকে সাত আর আট সেপ্টেম্বর বাংলার জেলায় জেলায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছিল।”

you're currently offline