Press "Enter" to skip to content

কয়লা কেলেঙ্কারি! তৎকালীন কয়লা সচিবের ৩ বছর জেলের সাজা ঘোষণা। এবার মনমোহন সিং এর পালা?

কংগ্রেস সরকারের আমলে দেশে বড়ো রকমের কয়লা ঘোটালা হয়েছিল। এই মামলায় অনেকগুলি কেস দায়ের করাও হয়েছিল। সেই সময় দেশের কয়লামন্ত্রী ছিলেন মনমোহন সিং যিনি নামমাত্র দেশের প্রধানমন্ত্রী আসনে বসেছিলেন। গতকাল দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে তৎকালীন কয়লা সচিব ও বাকি অন্য ২ জনকে সাজা শোনানো হয়েছে। পাতিয়ালা হাউস কোর্ট একটানা শুনানির পর তৎকালীন কয়লা সচিব HC গুপ্তাকে ৩ বছরের জন্য সাজা শুনিয়েছে। এছাড়াও ২ জন অন্য সরকারী কর্মচারীকে ৪ বছরের জেলের সাজা শুনিয়েছে পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। এই মামলা কয়লা কেলেঙ্কারির যেখানে বিকাশ মেটাল পাওয়ার লিমিটেড নামক এক কোম্পানিকে সুযোগ পাইয়ে দেওয়া হয়েছিল এবং পরিবর্তে মোটা আয় প্রাপ্ত করেছিল এই কাজে যুক্ত ব্যাক্তিরা।

যার মধ্যে তৎকালীন কয়লা সচিবের ৩ বছর জেল ঘোষণা করে দিয়েছে কোর্ট। তৎকালীন কয়লা সচিবের উপর জেলের সাথে সাথে ৫০,০০০ টাকা জরিমানা লাগিয়েছে কোর্ট। এই মামলার তদন্ত এবার মনমোহন সিং পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে যিনি সেই সময় কয়লামন্ত্রী হিসেবেও নিযুক্ত ছিলেন। কয়লা কেলেঙ্কারি হয়েছিল, ভারতের সম্পত্তি লুটে নেওয়া হয়েছিল এটা কাল পাতিয়ালা হাউসে প্রমাণিত হয়েছে এবং সচিবকে জেলের শাস্তি ঘোষণা করা হয়েছে।

এবার মন্ত্রীর পালা , কারণ সচিব একা সব করেছে এটা সম্ভব নয়। আগত সময়ের মধ্যে দেশের রাজনৈতিক মহল বেশ কিছু বিষয় নিয়ে গরমা গরম হতে চলেছে। গতকাল প্রধানমন্ত্রী মোদী রাজস্থানে বলেছেন- খ্রিস্টান মিচেল কব্জায় চলে এসেছে, দেখছি মা বেটাকে কে বাঁচায়।

জানিয়ে দি, প্ৰধানমন্ত্রী মোদী এখানে মা বেটা বলতে সোনিয়া ও রাহুল গান্ধীকে বুঝিয়েছে। সোনিয়া ও মনমোহন সময়কালে ভারতকে ব্যাপকহারে লুটে নেওয়া হয়েছে। আগত সময়ে রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধী, মনমোহন সিং সকলের জেল যোগ হতে পারে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.