Press "Enter" to skip to content

চিদম্বরমের পর র‍্যাডারে আরও এক কংগ্রেস নেতা, বাজেয়াপ্ত হল ১৫০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পত্তি

আয়কর বিভাগ গুরুগ্রামে ১৫০ কোটি টাকার হোটেলকে অবৈধ সম্পত্তি গণ্য করে বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছে। তদন্তে জানা গেছে যে, ওই হোটেল হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভজন লাল এর ছেলে তথা কংগ্রেস নেতা কুলদীপ বিষনো (Kuldeep Bishnoi) এবং চন্দর মোহন এর। বেনামি সম্পত্তি লেনদেন অধিনয়ম ১৯৮৮ এর ২৪ (৩) ধারা অনুযায়ী, আয়কর বিভাগ এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

আয়কর বিভাগের বেনামি নিদর্শন দল (BPU) এই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে। আয়কর দফতর দ্বারা বাজেয়াপ্ত করা এই সম্পত্তি হোয়াইট স্টার হোটেল প্রাইভেট লিমিটেড এর নামে আছে। যেখানে ৩৪ শতাংশ শেয়ার একটি অন্য কোম্পানির নামে আছে, যেটি ব্রিটিশ ভার্জিন আইল্যান্ডে রেজিস্টার্ড আছে। এই কোম্পানি সংযুক্ত আরব আমিরশাহি থেকে সঞ্চালিত হয়।

আয়কর দফতর এই পদক্ষেপ ২০১৯ এর জুলাই মাসে কোম্পানির সাথে যুক্ত তদন্তে পাওয়া প্রমাণের পর করেছে। ওই তদন্তে আয়কর বিভাগের কাছে অনেক প্রমাণ উঠে এসেছিল, আর সেই কারণে ওই কোম্পানির মালিকানা নিয়ে সন্দেহ হয়েছিল। ওই হোটেলের মালিকানা নিয়ে আয়কর বিভাগ অনিয়মিতা পেয়েছে। আর এরপর তদন্ত করে হোটেলটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে।

পি চিদম্বরমের পর আরেক কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে আয়করের অভিযান নিয়ে চাপে কংগ্রেস নেতৃত্ব। আইএনএক্স মামলায় প চিদম্বরম এখন সিবিআই এর হেফাজতে আছে। ওনার কাছে সিবিআই এর কর্তারা জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে। কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা তথা আইনজীবী কপিল সিব্বল সুপ্রিম কোর্টে চিদম্বরমের জামিন নিয়ে আবেদন করলেও, এখনো পর্যন্ত ওনার জামিন হয়নি। আর এরপর কুলদীপ বিষনোই এর নতুন মামলা কংগ্রেসকে আরও ভাবিয়ে তুলেছে।